তিন মাস পর গাজীপুর সিটির বিশেষ সভা

বাংলারজমিন

স্টাফ রিপোর্টার, গাজীপুর থেকে | ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৭, শুক্রবার
দীর্ঘদিন কারাবরণ ও বারবার সাময়িক বরখাস্তের পর নানা নাটকীয়তায় আবারো দায়িত্ব ফিরে পাওয়া নির্বাচিত মেয়র অধ্যাপক এম এ মান্নানের সঙ্গে নগরের এক সভায় একই টেবিলে বসলেন সাবেক ভারপ্রাপ্ত মেয়র, প্যানেল মেয়র, সরকার ও বিএনপি’র দলীয় কাউন্সিলরগণ। তাদের অনেকেই গত তিন মাস ধরে বিএনপি দলীয় এই মেয়রের ধারে-কাছেও আসেননি। মাসিক সভায়ও হাজির হননি। সভায় মেয়র অধ্যাপক এম এ মান্নান সিটি করপোরেশনের উন্নয়ন কার্যক্রম সফলভাবে বাস্তবায়নের জন্য সবার সহযোগিতা কামনা করেন। গাজীপুর সিটি করপোরেশনের নগর ভবনের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত এই বিশেষ সভায় মেয়র অধ্যাপক এম এ মান্নান সভায় সভাপতিত্ব করেন। সভায় বক্তব্য রাখেন গাজীপুর সিটি করপোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা কেএম রাহাতুল ইসলাম, সাবেক ভারপ্রাপ্ত ও প্যানেল মেয়র আসাদুর রহমান কিরণ, প্যানেল মেয়র হাসান আজমল ভূঁইয়া ও হোসনে আরা সিদ্দিকী, কাউন্সিলর হান্নান মিয়া হান্নু প্রমুখ। সভায় সিটি করপোরেশনের ওয়ার্ডভিত্তিক উন্নয়নমূলক কাজের সমন্বয়, নতুন প্রকল্প গ্রহণ ও অগ্রগতি সম্পর্কে আলোচনা করা হয়। ইতিপূর্বে গৃহীত বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্পের মধ্যে যেসব উন্নয়ন কাজের কার্যাদেশ দেয়া হয়েছে তা এখনও বাস্তবায়ন হয়নি এবং কার্যাদেশ পাওয়ার পরও যেসব ঠিকাদার নির্ধারিত সময়ে কাজ শেষ করেননি তাদের কার্যাদেশ বাতিলের বিষয়ে আলোচনা হয়। এই সভায় সিটি কর্পোরেশনের কর্মকর্তা ও কাউন্সিলরগণ উপস্থিত ছিলেন। এ সভায় মাঝে মাঝে উত্তেজনাকর পরিস্থিতির সৃষ্টি হলেও শেষ পর্যন্ত শান্তিপূর্ণ পরিবেশেই সভাটি শেষ হয়েছে। সভায় কয়েকজন কাউন্সিলর বিগত সময়ে ওয়ার্ডভিত্তিক উন্নয়ন বরাদ্দে বৈষম্য করা হয়েছে অভিযোগ করেন। নগরের ৫টি জোনের মধ্যে সবচেয়ে বেশি বরাদ্দ দেয়া হয়েছে জোন-১ (টঙ্গী) এ। সাবেক ভারপ্রাপ্ত মেয়রের এলাকা ওই জোনে দরপত্র আহ্বান করা হয়েছে ২৩০ কোটি ৪২ লাখ ২৬ হাজার ৩৪২ টাকা। দ্বিতীয় অবস্থানে জোন-২ (গাছা পূবাইল)। ওই জোনে দরপত্র আহ্বান করা হয়েছে ৮৪ কোটি ৬০ লাখ ৩৪ হাজার ৯শ’ টাকা।


 

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

৮৫ লাখ টাকা মূল্যের স্বর্ণসহ ভারতীয় নাগরিক আটক

যেকোনো মুহূর্তে যুদ্ধ!

নবজাতকের মৃত্যু, উত্তেজনা

মিয়ানমারের অনুরোধে খবর গোপন করেছিল জাতিসংঘ

তিন দিন ধীরগতি থাকবে ইন্টারনেটে

সন্তানকে ফিরে পেতে বাবা-মায়ের আকুতি

‘সুষমা স্বরাজের ঢাকা সফরে রোহিঙ্গা, তিস্তা ইস্যু থাকবে’

কে এই কিংবদন্তী নর্তকি ও গুপ্তচর মাতা হরি?

রোহিঙ্গাদের জন্য ৪৩ কোটি ৪০ লাখ ডলার সংগ্রহে ডোনার কনফারেন্স করবেন জাতিসংঘের কর্মকর্তারা

ইউপি চেয়ারম্যান ও আ’লীগের নেতার বিরুদ্ধে ধর্ষণ মামলা

‘ব্যাক্তিগত জীবন নিয়ে সিদ্ধান্তের অধিকার সবারই আছে’

ঢাকায় আসছেন জাপানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী তারো কোনো

আবারো মিয়ানমারের বিরুদ্ধে অস্ত্র-ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞার আহ্বান

কুয়েতে এসি বিস্ফোরণে মৌলভীবাজারের একই পরিবারের ৫ জনের মৃত্যু

৮০০ কোটি টাকার প্রকল্প নিয়ে নানা প্রশ্ন

যুদ্ধ নয় আলোচনায় সমাধান