ভারতে গণধর্ষণ ও এসিড হামলা শিকার এক নারী

ভারত

মানবজমিন ডেস্ক | ১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৭, বৃহস্পতিবার
ভারতে এক নারীকে গণধর্ষণ করার মামলায় অভিযুক্ত দুই আসামি জামিনে ছাড়া পাবার পর ওই নারীর ওপর এসিড দিয়ে হামলা চালিয়েছে। পুলিশ বলছে, ধর্ষণ ও এসিড হামলার শিকার ওই নারী দুই হামলাকারীসহ মোট তিনজনের বিরুদ্ধে তাকে গণধর্ষণের অভিযোগ করেছিলো। এ খবর দিয়েছে বিবিসি। খবরে বলা হয়, ওই নারীকে উত্তর প্রদেশের ফতেহগর শহরে ধর্ষণ করা হয়। তার অভিযোগের ভিত্তিতে তিনজনকে গ্রেপ্তার করা হয়। তবে জামিনে ছাড়া পেয়ে যায় দুজন।
জেলে থেকে যায় একজন। ওই ধর্ষিতা নারী জামিন মঞ্জুর করার রায়ের বিরুদ্ধে আবেদন জানাতে এক স্থানীয় আদালতে যান। সেখান থেকে ফেরার পথে ওই দুই ধর্ষক তাকে এক নির্জন জায়গায় নিয়ে যায় ও মামলাটি প্রত্যাহার করে নিতে বলে। তখন মামলা প্রত্যাহার করতে অস্বীকৃতি জানালে তারা ওই নারীর ওপর এসিড দিয়ে হামলা চালায়। পুলিশের সুপারিনটেন্ডেন্ট দয়া নন্দ মিশরা বলেন, ওই নারী অভিযোগ করেছেন যে, তিনি মামলা প্রত্যাহার করতে সম্মত না হলে তারা তার মুখে ও শরীরে এসিড নিক্ষেপ করে। তার মুখ ও শরীর ঝলসে গেছে ও তাকে একটি স্থানীয় হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।
 
ভারতে ২০১২ সালে দিল্লিতে এক ছাত্রীকে বাসের মধ্যে গণধর্ষণ ও হত্যা করার পর থেকে যৌন হামলার ঘটনা সুবিবেচনা করার নজির বেড়েছে।  তবে, নারীদের ওপর নৃশংস যৌন হামলার ঘটনা এখনো কমেনি। দেশজুড়ে বিভিন্ন জায়গায় শিশু ও নারীদের ওপর এমন হামলা চালানো অব্যাহত রয়েছে।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

বিএনপিকে ভোট দিয়ে অশান্তি ফিরিয়ে আনবে না জনগণ: প্রধানমন্ত্রী

অভিযোগ মিথ্যা এতিমখানার টাকা আত্মসাৎ করিনি

আরো ব্লগার হত্যার হিটলিস্ট

আসিফ নজরুলের বিরুদ্ধে মামলা, অতঃপর...

ফের বেড়েছে বিদ্যুতের দাম

চাহিদা নেই, তবুও রাজউকের নতুন ফ্ল্যাট প্রকল্প

‘আনিসুল হককে নিয়ে নেতিবাচক প্রচারণা ভিত্তিহীন’

মৌলভীবাজারে গ্রাহকের কোটি টাকা নিয়ে লাপাত্তা ভিডিএন চেয়ারম্যান ও এমডি

সিলেটে জামায়াতের ‘স্বতন্ত্র প্রার্থী’, জল্পনা

সম্ভাব্য প্রার্থীদের দৌড়ঝাঁপ

রোহিঙ্গা জাতি নিধনের তুমুল সমালোচনা যুক্তরাষ্ট্রের

‘আমি হতবাক’

ডাক্তাররা বেশ প্রভাবশালী ও তদবিরে পাকা: স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী

যশোর জেলা স্পেশাল জজের বিরুদ্ধে ঘুষ নেয়ার অভিযোগ

রোহিঙ্গা শব্দ ব্যবহার না করতে বলা হলো পোপকে

অসুস্থ রাজনীতি বাংলাদেশকে গ্রাস করছে: ড. কামাল হোসেন