রাবি ভর্তি পরীক্ষায় মুক্তিযোদ্ধার নাতি-নাতনিরাও কোটা পাচ্ছেন

শিক্ষাঙ্গন

রাবি প্রতিনিধি | ১৭ আগস্ট ২০১৭, বৃহস্পতিবার
রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০১৭-২০১৮ শিক্ষাবর্ষের স্নাতক (সম্মান) প্রথম বর্ষের ভর্তি পরীক্ষায় দ্বিতীয়বার অংশগ্রহণের সুযোগ বহাল ও আবেদনের যোগ্যতা শিথিল করে গত বছরের ভর্তি যোগ্যতাই বহাল রেখেছে ভর্তি পরীক্ষার মূল কমিটি। এছাড়া এবছর থেকে মুক্তিযোদ্ধা কোটায় পুত্র-কন্যার পাশাপাশি নাতি-নাতনিদেরকেও কোটাভুক্ত করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। বৃহস্পতিবার বিকেলে এসব তথ্য জানান বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার অধ্যাপক এমএ বারী।

তিনি জানান, বৃহস্পতিবার সকাল ১০টা থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের সভাপতিত্বে সিনেট ভবনে প্রথম বর্ষ ভর্তি পরীক্ষার মূল কমিটির সভা শুরু হয়। এসময় বেশ কয়েকটি এজেন্ডা ছিল। ভর্তি উপ-কমিটির করা সুপারিশের ভিত্তিতে কমিটির সদস্যদের মতামত অনুযায়ী দ্বিতীয়বার ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণের সুযোগ বহাল রাখা হয়েছে। তবে উপ-কমিটির সুপারিশ করা ভর্তি আবেদন যোগ্যতা মানবিক ৭ দশমিক ৫০, ব্যবসায় শিক্ষা ৮ ও বিজ্ঞান শাখার শিক্ষার্থীদের ৮ দশমিক ৫০ পয়েন্ট রাখার সিদ্ধান্ত থেকে সরে এসে ভর্তি কমিটি গত বছরের ভর্তি আবেদন যোগ্যতা বহাল রেখেছে।
গত বছর মানবিকে ৭, ব্যবসায় শিক্ষায় ৭ দশমিক ৫০ ও বিজ্ঞানের শিক্ষার্থীদের ৮ পয়েন্ট আবেদনের যোগ্যতা রাখা হয়েছিল। এছাড়া মুক্তিযোদ্ধা কোটার ক্ষেত্রে তাদের পুত্র-কন্যার পাশাপাশি নাতি-নাতনিরাও কোটার অন্তর্ভূক্ত হবেন।
নাতি নাতনির কোটা নিয়ে জানতে চাইলে রেজিস্ট্রার বলেন, বর্তমানে ঢাকা, চট্টগ্রামসহ প্রায় সব বিশ্ববিদ্যালয় এবং চাকরির ক্ষেত্রেও মুক্তিযোদ্ধাদের নাতি নাতনিদের বিবেচনা করা হচ্ছে। পাশাপাশি রাজশাহী অঞ্চলের মুক্তিযোদ্ধাদের দীর্ঘদিনের দাবির প্রেক্ষিতেই মুক্তিযোদ্ধার নাতি নাতনিদের বিবেচনা করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।
উল্লেখ্য, গত ৩ আগষ্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক আব্দুস সোবহানের সভাপতিত্বে ভর্তি উপ-কমিটির সভা থেকে দ্বিতীয়বার ভর্তি পরীক্ষার সুযোগ দান ও ভর্তি আবেদন যোগ্যতা বৃদ্ধির জন্য ভর্তি মূল কমিটিকে সুপারিশ করা হয়। আগামী ১০ সেপ্টেম্বর থেকে ভর্তির আবেদন করা যাবে। এবং ২২-২৬ অক্টোবর ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।

 

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

আন্তর্জাতিক পর্যবেক্ষণের দাবি

এখনও আসছে রোহিঙ্গারা, সমঝোতা নিয়ে মিশ্র প্রতিক্রিয়া

৯০ টাকা ছাড়ালো পিয়াজের কেজি

বিদ্যুতের দাম বৃদ্ধি মামুলি ব্যাপার

‘মড়ার উপর খাঁড়ার ঘা’

চিরঘুমে লোকসংগীতের মহীরুহ

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে বন্যার ক্ষতি পোষাতে দরকার ১০০ কোটি টাকা

জিম্বাবুয়ের নতুন প্রেসিডেন্টের শপথ

দুই দলেই হেভিওয়েট প্রার্থী

দরিদ্রদের জন্য বিচারের বাণী নীরবে কাঁদে

৭ই মার্চ ভাষণের স্বীকৃতিতে দেশব্যাপী শোভাযাত্রা আজ

সম্মতিপত্র প্রকাশের দাবি বিএনপির

ঘরে ঘুরে দাঁড়ালো চিটাগং

মিশরে মসজিদে জঙ্গি হামলা, নিহত কমপক্ষে ২৩০

‘শেষ মুহূর্তে হলে সরকার সমঝোতায় আসবে’

রবি-সোমবার সব সরকারি কলেজে কর্মবিরতি