বাংলাদেশে অনেকে বাঁহাতিদের বেয়াদব মনে করে

রকমারি

বিবিসি বাংলা | ১৩ আগস্ট ২০১৭, রবিবার | সর্বশেষ আপডেট: ৬:৪০
অমিতাভ বচ্চন, জুলিয়া রবার্টস, অ্যাঞ্জেলিনা জোলি, বারাক ওবামা, জর্জ বুশ, পেলে, ম্যারাডোনা কিংবা বাংলাদেশের সাকিব আল হাসান, তামিম ইকবাল, মুস্তাফিজুর রহমান নামগুলো অনেকেরই চেনা অথবা প্রিয়।
নামজাদা এই মানুষগুলোর সবার একটি ব্যাপারে রয়েছে দারুণ মিল। এরা সবাই বাঁহাতি।
সাধারণভাবে ডানহাতে কাজ করাটাই প্রচলিত, তাই একটা সময় একজন বাঁহাতি মানুষকে সমাজে মেনে নেয়াটা সহজ ছিল না।
এই চিন্তা থেকেই ইউরোপে কয়েক দশক আগে থেকে শুরু হয় বাঁহাতি দিবস উদযাপন।
বাংলাদেশের সমাজে বাঁহাতিরা কতটা সাদরে গৃহীত হন?
ঢাকার বাসিন্দা নুসরাত জাহান বিবিসি বাংলার শায়লা রুখসানাকে বলছিলেন, বাঁহাতি হবার জন্য তাকে নানা ধরণের বিড়ম্বনায় পড়তে হয়েছে।
তিনি বলছেন, "যখন হাত দিয়ে খেতে শুরু করি তখন প্রথম বিষয়টাতে গুরুত্ব দেয়া হয়েছিলো। আমি দুহাতে খেতাম। আমাকে ডানহাতে খাওয়ার জন্য চাপ দেয়া হতো। লেখা শুরু করার পরও ডানহাতে লেখার জন্য চাপ দেয়া হতো। ছোটবেলায় এমনকি একটা সময়ে আমার বাঁহাত কিছুদিন বেঁধেও রাখা হয়েছিলো" মানুষ কেন বাঁহাতি হয় সেটি এখনো পরিষ্কার নয়।
তবে বিশ্বের দশ শতাংশ মানুষ বাঁহাতি।
বিভিন্ন সংস্কৃতিতে তাদের নিয়ে রয়েছে নানা ধরনের সংস্কার।
বাঁহাতিদের এমনকি জোর করে ডানহাতি বানানোর চেষ্টাও আছে।
তবে এটি উত্তরাধিকার সূত্রেও হয়ে থাকে যেমন নুসরাত জাহানের মেয়েও বাঁহাতি।
নুসরাত জাহান এমনকি সেলাইও করেন বাহাতে। বলছিলেন বাঁহাতি হওয়ার কারণে তাকে বিয়ের পর ব্যাপক হেনস্তার শিকার হয়েছেন।
তিনি বলছেন, "বাংলাদেশে অনেকে বাঁহাতিদের বেয়াদব মনে করে"

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

Mohammed Lokman Haki

২০১৭-০৮-১৩ ০৮:৫৯:৪০

বাম হাত ব্যবহারে বাধা নহে তবে ক্ষেত্র বিশেষে ইসলামী ধর্মীয় আদর্শ থেকেই কিছুটা বাধা আছে বটে। নবীজি এরশাদ করেছেন ডানদিকেই আল্লাহ্‌ পাকের রহমত অধিকতর বিরাজমান। আর এখান থেকেই বুজরগানেদ্বীনগন লওয়া-দেওয়ায় ডান হাত ব্যবহারের কথা বলেছেন, যা দৃশ্যত মুসলিম সমাজে বিশ্বের সর্বত্র পরিলক্ষিত হয়। ইহা বাংলাদেশের জন্য পৃথক করে কিছু নহে।

আপনার মতামত দিন

আন্তর্জাতিক পর্যবেক্ষণের দাবি

এখনও আসছে রোহিঙ্গারা, সমঝোতা নিয়ে মিশ্র প্রতিক্রিয়া

৯০ টাকা ছাড়ালো পিয়াজের কেজি

বিদ্যুতের দাম বৃদ্ধি মামুলি ব্যাপার

‘মড়ার উপর খাঁড়ার ঘা’

চিরঘুমে লোকসংগীতের মহীরুহ

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে বন্যার ক্ষতি পোষাতে দরকার ১০০ কোটি টাকা

জিম্বাবুয়ের নতুন প্রেসিডেন্টের শপথ

দুই দলেই হেভিওয়েট প্রার্থী

দরিদ্রদের জন্য বিচারের বাণী নীরবে কাঁদে

৭ই মার্চ ভাষণের স্বীকৃতিতে দেশব্যাপী শোভাযাত্রা আজ

সম্মতিপত্র প্রকাশের দাবি বিএনপির

ঘরে ঘুরে দাঁড়ালো চিটাগং

মিশরে মসজিদে জঙ্গি হামলা, নিহত কমপক্ষে ২৩০

‘শেষ মুহূর্তে হলে সরকার সমঝোতায় আসবে’

রবি-সোমবার সব সরকারি কলেজে কর্মবিরতি