৫৭ ধারা একটি কালো আইন

ফেসবুক ডায়েরি

অমিতাভ রেজা চৌধুরী | ১৫ জুলাই ২০১৭, শনিবার | সর্বশেষ আপডেট: ১০:৫৭
চলচ্চিত্র গবেষক ও লেখক অধ্যাপক ফাহমিদুল হকের বিরুদ্ধে ৫৭ ধারায় যে হয়রানিমূলক মামলা করা হয়েছে তা প্রত্যাহার করা হোক।
৫৭ ধারা একটি কালো আইন। এই আইন মানুষের কণ্ঠরোধ করার জন্য, মানুষকে দমন করার জন্য এবং মানুষের প্রতিবাদকে নস্যাৎ করতে প্রবর্তন করা হয়েছে। এই কালো আইনের সর্বশেষ শিকার অধ্যাপক ফাহমিদুল হক। আমরা সকলে অবিলম্বে এই মামলা প্রত্যাহার দাবি করছি।
আমরা আশা করি মামলাকারী শিক্ষকের শুভবোধের উদয় হবে এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ এমন হয়রানি এবং হঠকারি পদক্ষেপ থেকে নিজেদের মর্যাদাকে সুরক্ষিত করবেন।
বাংলাদেশের সকল চলচ্চিত্র নির্মাতা, চলচ্চিত্র সংগঠক, চলচ্চিত্র শিক্ষক ও গবেষক, চলচ্চিত্র সাংবাদিক, চলচ্চিত্র কর্মী সকলের কাছে আহ্বান আপনারা এই কালো আইনের (৫৭ ধারা) বিরুদ্ধে সোচ্চার হোন এবং অধ্যাপক ফাহমিদুল হকের সপক্ষে অবস্থান নিন। আমরা অবশ্যই অধ্যাপক ফাহমিদুল হকের সঙ্গে আছি, পাশে আছি এবং লড়াইয়ের সম্মুখে আছি!।


এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

কীভাবে আন্তর্জাতিক আদালতে বিচারকের পদ হারালো বৃটেন?

টসে জিতে ব্যাটিংয়ে রাজশাহী কিংস

গুম আর জোর করে গুম এক নয়

আনন্দ শোভাযাত্রা শুরু

‘দুর্নীতি বাড়ার জন্য রাজনীতিবিদরা দায়ী’

রংপুর ও রাজশাহীতে শীত বাড়ছে

‘ভারত ও চীন রাখাইনে রোহিঙ্গাদের বাড়ি ঘর নির্মাণে সহায়তা করবে’

দিনাজপুরে পরিবহন ধর্মঘট অব্যাহত: যাত্রীদের চরম দূর্ভোগ

বিডিআর বিদ্রোহ মামলায় হাইকোর্টের রায় কাল

বরিশালে রানী এলিজাবেথের পুত্রবধূর একদিন

ইরান-সৌদি আরব বাকযুদ্ধ

বরখাস্ত তিনজন, তদন্ত কমিটি

‘শিগগিরই সুখবরটি শুনতে পাবেন’

যে রাস্তাগুলো বন্ধ থাকবে আজ

জেলা, উপজেলা, পৌরসভা এবং ইউপি নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন চূড়ান্ত

‘শেষ মুহূর্তে হলে সরকার সমঝোতায় আসবে’