যৌথ প্রযোজনার ছবি তৈরি আপাতত বন্ধ রাখায় পশ্চিমবঙ্গে উদ্বেগ

ভারত

কলকাতা প্রতিনিধি | ১২ জুলাই ২০১৭, বুধবার
যৌথ প্রযোজনার ছবি তৈরি বাংলাদেশ আপাতত বন্ধ রাখায় উদ্বেগ ছড়িয়ে পড়েছে পশ্চিমবঙ্গের প্রযোজক ও পরিচালকদের মধ্যে। ইতিমধ্যেই প্রায় শেষ হওয়া বা শেষ হওয়ার মুখে এমন চারটি ছবির ভবিষৎ কি হবে তা নিয়ে চিন্তার ভাজ টালিগঞ্জে। এই ছবিগুলি হল, প্রসেনজিৎ অভিনীতি সৃজিত মুখার্জির ছবি ইয়েতি অভিযান, রাজ চক্রবর্তীর নুরজাহান, সোহম-মাহীর ছবি তুই শুধু আমার এবং জিৎ-র একটি ছবি। আগামী দুর্গাপুজোয় মুক্তির লক্ষ্য নিয়ে ছবিগুলির নির্মাণের কাজ চলছিল। সাম্প্রতিককালে যৌথ প্রযোজনার ছবি তৈরিতে জেয়ার তৈরি হয়েছিল। যৌথ প্রযোজনায় পদ্মা নদীর মাঝি, মনের মানুষ, শঙ্খচিলের মত বেশ কয়েকটি ভাল ছবিও তৈরি হয়েছে। পরিচালক গৌতম ঘোষের মত, বিশ্ব বাজারে বাংলা ছবির জন্য একক একটি পথ খোলা দরকার। তবে যৌথ প্রযোজনার ক্ষেত্রে কিছু প্রযোজক স্বচ্ছতা বজায় রাখছেন না বলে অনেকদিন ধরেই অভিযোগ শোনা গেছে। পরিচালক গৌতম ঘোষও মেনে নিয়েছেন যে, ইদানিং বেশ কিছু ছবি তৈরি হচ্ছে যেগুলি যৌথ প্রযোজনার শর্ত না মেনেই তৈরি হচ্ছে। তবে তিনি বলেছেন, তাঁর তৈরি তিনটি ছবির ক্ষেত্রেই তিনি সব শর্ত পূরণ করেই ছবি বানিযেছেন। যৌথ প্রযোজনার ক্ষেত্রে সব চেয়ে বড় অভিযোগ হল, পরিচালনার ক্ষেত্রে দুই দেশের পরিচালকের নাম সমান গুরুত্ব দিয়ে প্রচার করা হয় না। অনেক সময় বাংলাদেশের এমন একজনের নাম পরিচালক হিসেবে দেয়া হয়, যিনি কখনও শুটিংয়ে উপস্থিতই থাকেননি।  দুই বাংলায় জনপ্রিয় অভিনেতা ফেরদৌস পরিস্কারই বলেছেন, যৌথ প্রযোজনার নামে চরম বৈষম্য চলছে। কোনও অভিনেতাকে প্রচুর সুযোগ দেয়া হলেও অন্যরা বঞ্চিত হচ্ছেন। দুই বাংলার কলাকুশলীরাও অনেক সময়ই বঞ্চিত হচ্ছেন। তিনি বলেছেন, যৌথ প্রযোজনার পক্ষে তিনি হলেও, বর্তমানে যে অস্বচ্ছতা চলছে তার অবসান হওয়া দরকার। যৌথ প্রযোজনার ক্ষেত্রে দুই দেশ থেকে সমান সংখ্যক কলাকুশলী নেবার রীতিকে অধিকাংশ সময়ই লঙ্ঘন করা হচ্ছে বলে বিভিন্ন সময়ে অভিযোগ উঠেছে।


 
এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

ভবিষ্যৎ নির্বাচন নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্যে আস্থা নেই বিএনপির

রুবির বক্তব্য আমলে নিয়ে তদন্তের নির্দেশ

মিয়ানমারকেই রোহিঙ্গা সমস্যার সমাধান করতে হবে

সর্বশেষ আসা রোহিঙ্গাদের মুখে নির্যাতনের বর্ণনা

হঠাৎই সব এলোমেলো

হারানো দুর্গ পুনরুদ্ধার করতে চায় বিএনপি

পাহাড়ে দাঙ্গা সৃষ্টির চেষ্টা

একই চিত্র জাকিরুলের বাড়িতে

মা এখনো জানেন না

ত্রাণ ব্যবস্থাপনায় কাজ করছে বিমান বাহিনী

ফের কমলো স্বর্ণের দাম

লিবিয়ার আইএস ঘাঁটিতে মার্কিন বিমান হামলা, নিহত ১৭

উল্টো পথে আবার ধরা সচিবের গাড়ি

ফের কমলো স্বর্ণের দাম

ছাত্রের হাতে শিক্ষক জখম

পালিয়ে আসা রোহিঙ্গাদের ৮০ ভাগ নারী ও শিশু: কেয়ার