‘মাঠে নামলেই সব হবে আগের মতো’

স্পোর্টস রিপোর্টার

খেলা ২ আগস্ট ২০২০, রোববার | সর্বশেষ আপডেট: ১২:৪২

করোনা মহামারি নিয়ে চলে গেল আরো একটি ঈদ। এবার আশা মাঠে ফিরবে ক্রিকেট। তবে প্রশ্ন থেকে যাচ্ছে, কবে ফিরবে! আর ফিরলেও থাকছে নানা দুশ্চিন্তা। এখন বড় আলোচনা হলো করোনার প্রভাবে অনেক বদলে যাওয়া ক্রিকেটের সঙ্গে নিজেদের মানিয়ে নেয়ার চ্যালেঞ্জ নিয়ে। মার্চ থেকে স্থগিত দেশের সব ধরনের ক্রিকেট। বাতিল ও স্থগিত হয়েছে একের পর এক ক্রিকেট সিরিজ। চার মাস কেটে গেছে, নেই মাঠে ব্যাট-বলের লড়াই। তবে ভয় উড়িয়ে বেশ কয়েকজন ক্রিকেটার ঈদের আগে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) ব্যবস্থাপনায় ব্যক্তিগত অনুশীলন করেছেন।
তাই সবার মনে বিশ্বাস জন্মেছে হয়তো ঈদের পরই মাঠে ক্রিকেট ফেরানোর প্রক্রিয়াটা শুরু হবে জোরেসোরে। এরমধ্যে বিসিবিও চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে স্থগিত হওয়া আন্তর্জতিক ক্রিকেট সিরিজ পুনরায় আয়োজন করার। বিশেষ করে শ্রীলঙ্কা সফরের জন্য দুই দেশের বোর্ডে আলোচনা চলছে। সেটি হলেই এ বছর আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলার হারানো সুযোগ ফিরে পাবে টাইগাররা। জাতীয় দলের নির্বাচকরাও তাকিয়ে শ্রীলঙ্কা সফরের দিকে। তারা আত্মবিশ্বাসী যে মাঠে ফিরলে করোনার চ্যালেঞ্জ টাইগাররা মানিয়ে নিতে পারবে দ্রুতই। এ বিষয়ে নির্বাচক হাবিবুল বাশার বলেন, ‘আমরা এখনো কোনো দল ঘোষণার কথা ভাবতে পারিনি। কারণ আমাদের সামানে কোনো আন্তর্জাতিক সিরিজ নেই। যদি শ্রীলঙ্কা সফর হয় তবেই আমাদের কাজ শুরু হবে। করোনা ভাইরাসের যে চ্যালেঞ্জের কথা বলা হচ্ছে আমার ধারণা ক্রিকেটটা মাঠে ফিরলে তা বাংলাদেশ সহজেই মানিয়ে নিতে পারবে। আমার ধারণা মাঠে নামলে সব আগের মতোই হবে।’
জুনের শেষ দিকে শ্রীলঙ্কা সফরে যাওয়া কথা ছিল  বাংলাদেশ দলের। কিন্তু করোনার কারণে কোনো অনুশীলন করতে পারেনি বাংলাদেশ দল। তাই শ্রীলঙ্কায় তিন টেস্টের  সিরিজ খেলা ভীষণ কঠিন হবে বলেই সফরটি সেই সময় স্থগিত হয়। এই বছর যদি সিরিজটি ফের আয়োজন হয় তাহলে একই চ্যালেঞ্জ থাকবে টাইগারদের সামনে। তবে নির্বাচক বাশার মনে করেন চ্যালেঞ্জ দুই দলের জন্য হবে সমানে সমান। তিনি বলেন, ‘আমি মনে করি আমাদের জন্য যে চ্যালেঞ্জ হবে। শ্রীলঙ্কার জন্যও তাই। মনে হচ্ছে ওরা আগে অনুশীলন শুরু করেছে তাই এগিয়ে থাকবে, আসলে তা নয়। ওরা কিন্তু মাঠের ক্রিকেট শুরু করেনি। যদি করে সেটি আমাদের সামনেই করতে হবে। তাই আমি মনে করি দুই দলের জন্য অবস্থা একইরকম। এতে আমাদের বিচলিত হওয়ার কিছু নেই।’
করোনার প্রভাবে সরা বিশ্বের ক্রিকেট বন্ধ ছিল। কিন্তু ঈদের আগেই ভয় উড়িয়ে মাঠে নেমেছে ইংল্যান্ড ও ওয়েস্ট ইন্ডিজ দল। দ্ইু দলের টেস্ট ম্যাচে দেখা গেছে করোনার প্রভাবে বদলে যাওয়া ক্রিকেটের রূপ। নতুন নতুন সব নিয়ম যোগ হয়েছে ক্রিকেটে। তাই টাইগাররা মাঠে ফিরলে এসব নিয়মের সঙ্গে মানিয়ে নেয়াও হবে বড় চ্যালেঞ্জ। তবে বাশার আত্মবিশ্বাসী। তার মতে ক্রিকেট শুরু হলে মানিয়ে নেয়াটা হবে সময়ের ব্যাপার মাত্র। তিনি বলেন, ‘দেখেন সবাই কিন্তু বাসায় বসে ইংল্যান্ড-ওয়েস্ট ইন্ডিজের ম্যাচ দেখেছে। সেখানে যে সব বদল এসেছে তার সম্পর্কে একটা ধারণাও তৈরি হয়েছে সবার। ঐ দুই দলও কিন্তু নতুন নিয়মগুলো মাঠে নেমেই মানিয়ে নেয়ার চেষ্টা করেছে। আমি বলবো আমাদের জন্যও তাই হবে। মাঠে যখন ক্রিকেট শুরু হবে তখন এসব নতুন নিয়মের সঙ্গে মানিয়ে নেয়া হবে সময়ের ব্যাপার মাত্র। কারণ প্রফেশনাল ক্রিকেটাররা এই সব পরিবর্তনের সঙ্গে নিজেদের মানিয়ে নিতে অভ্যস্ত।’

আপনার মতামত দিন

খেলা অন্যান্য খবর

পাকিস্তানের বিপক্ষে ‘শুরু’র দুশ্চিন্তায় ইংল্যান্ড

৫ আগস্ট ২০২০

ব্যাটে-বলের লড়াইয়ে ফের সরগরম হচ্ছে ম্যানচেস্টারের ওল্ড ট্র্যাফোর্ড ক্রিকেট স্টেডিয়াম। মাত্র ২০ দিনের ব্যবধানে তৃতীয়বারের ...

ফিফার করোনা অনুদান জানুয়ারিতে!

৫ আগস্ট ২০২০

করোনা মহামারির কারণে দীর্ঘদিন বন্ধ ছিল সব ধরনের খেলাধুলা। খেলা না থাকায় আর্থিক ক্ষতির মুখে ...

শুটিংয়ে ক্রীড়া পরিষদের তদন্ত কমিটি

৫ আগস্ট ২০২০

শুটিং স্পোর্ট ফেডারেশনের শীর্ষ কর্মকর্তাদের দ্বন্দ্বের সত্যতা যাচাইয়ে তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করলো জাতীয় ...

ছোট পর্দায় আজ

৫ আগস্ট ২০২০

ইংল্যান্ড-পাকিস্তান ১ম টেস্টম্যানচেস্টার, প্রথম দিন বিকাল ৪টা(সনি সিক্স)উয়েফা ইউরোপা লীগশেষ ষোলো, ...



খেলা সর্বাধিক পঠিত