করোনায় মৃত লাশ গভীর গর্তে ছুড়ে ফেলার ভিডিও ভাইরাল

মানবজমিন ডেস্ক

বিশ্বজমিন ২ জুলাই ২০২০, বৃহস্পতিবার | সর্বশেষ আপডেট: ১:৪৯

ভারতের দক্ষিণাঞ্চলীয় অঙ্গরাজ্য কর্ণাটকে করোনায় মারা যাওয়া মানুষের লাশ ময়লা আবর্জনার স্তূপে ছুড়ে ফেলেছে সরকারি কর্মীরা। এ ধরণের একটি ভিডিও ভাইরাল হওয়ায় পুরো রাজ্যজুড়ে মানুষ ক্ষোভে ফেটে পড়েছে। ভিডিওতে দেখা যায়, কালো ময়লা ফেলার ব্যাগে ঢুকানো হয়েছে করোনায় মারা যাওয়া মানুষের লাশ। এরপর বেশ গভীর গর্তে সেই লাশ ছুড়ে ফেলছেন পিপিই পরা কর্মীরা। রাজ্যের বেলারি জেলার কর্মকর্তারা নিশ্চিত করে বলেছেন, ওই ফুটেজ ভুয়া নয়। তারা এজন্য মৃতদের পরিবারের কাছে ক্ষমা চেয়েছেন। এ খবর দিয়েছে বিবিসি।

খবরে বলা হয়, মোট ৮ জন মানুষের লাশ এভাবে গর্তে ফেলা হয়েছে। এরা সবাই কয়েকদিন আগে কভিড-১৯ রোগে মারা গিয়েছিলেন।

এই রোগে পুরো রাজ্যে মোট ২৪৬ জন মারা গেছেন। তবে এই রোগের সংস্পর্শে আসা মানুষ চিহ্নিত করা ও সর্বোপরি রোগের সংক্রমণ রোধে অন্যান্য রাজ্য থেকে কর্ণাটক বেশি সফল হয়েছে বলে বিবেচনা করা হয়।

বেলারি জেলার জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা এসএস নাকুলা বিবিসি হিন্দিকে বলেছেন, ‘মৃতদের পরিবারের কাছে নিঃশর্ত ক্ষমা চেয়ে আমরা চিঠি লিখেছি। আমরা খুবই আহত এ বিষয়টি নিয়ে। আমরা খুবই দুঃখিত। যেভাবে মৃত লাশ ছুড়ে ফেলা হয়েছে গর্তে, তার নিন্দা জানাই আমরা। পুরো বিষয়টি আরও মানবিকতার সাথে করা উচিৎ ছিল।’

তিনি বলেন, ‘কর্মীরা সকল প্রটোকল মেনেছে। কিন্তু তারা যে ভুল করেছে, সেটা প্রটোকলের ভুল নয়, বরং তাদের মানসিকতার ভুল। একটি লাশকে মর্যাদা দিতে হয়।’

তিনি আরও জানান, ভিডিওতে যেসব কর্মীকে ওই কাজ করতে দেখা গেছে, তাদেরকে বরখাস্ত করা হয়েছে। তাদের স্থলে নতুন দল নিয়োগ দেওয়া হয়েছে যারা মৃতদেহ সৎকারের কাজ সংবেদনশীলভাবে করবে।

ভারতে কোভিড-১৯ রোগ নিয়ে ব্যাপক ভয় ও ভুল ধারণা বিরাজ করছে। যারা এই রোগে আক্রান্ত হচ্ছে তাদের কাছ থেকে অন্যরা দূরে থাকছে। অচ্ছুতের মতো বিবেচনা করা হয় রোগীদের।

ভারতে এই মুহূর্তে মোট ৬ লাখ রোগীর সন্ধান পাওয়া গেছে, যা বিশ্বের চতুর্থ সর্বোচ্চ।

আপনার মতামত দিন

বিশ্বজমিন অন্যান্য খবর



বিশ্বজমিন সর্বাধিক পঠিত



ট্রাম্পের অভিবাসন বিষয়ক নির্দেশ-

যে প্রভাব পড়বে ভিসা ও গ্রিনকার্ডের ওপর

মালয়েশিয়ায় গ্রেপ্তার রায়হান

ক্রাইম করিনি, মিথ্যা বলিনি