কলকাতা কথকতা

বাংলাদেশে কেউ আমাদের সমর্থন করেনা কেন? তামিম ইকবালকে প্রশ্ন রোহিত শর্মার

জয়ন্ত চক্রবর্তী, কলকাতা

কলকাতা কথকতা ১৬ মে ২০২০, শনিবার | সর্বশেষ আপডেট: ৪:৫৯

করোনার লকডাউনের মধ্যে ফেসবুকে চ্যাটে বসেছিলেন ভারতের ওপেনিং ব্যাটসম্যান রোহিত শর্মা এবং বাংলাদেশের ওপেনার তামিম ইকবাল। রোহিত শর্মা তামিমকে প্রশ্ন করেন, বিশ্বের সব জায়গায় ভারতকে সমর্থন করার লোক পাই। কিন্তু বাংলাদেশে কেউ আমাদের সামর্থন করে না কেন? উত্তরটা অবশ্য রোহিতই দিয়ে দেন, আসলে প্রতিটি বাংলাদেশি জাতীয় ক্রিকেট দলের পিছনে যে ভাবে দাঁড়ায় তাতে প্রবল প্রতিপক্ষ ভারতকে তারা সমর্থনের কথা ভাবতেই পারেন না। ভারতের সর্বকালের অন্যতম সেরা ব্যাটম্যানটি অবশ্য এটা স্বীকার করতে দ্বিধা করেননি যে বাংলাদেশ এখন আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে একটি বৃহৎ শক্তি। বাংলাদেশের বিরুদ্ধে রোহিত ২০১৫ বিশ্ব কাপে, ২০১৭ এর চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে এবং ২০১৯ এর বিশ্ব কাপে সেঞ্চুরি করেন। চ্যাটে তামিম ইকবাল বলেন, রোহিত ভাই, তুমি আমাদের বিরুদ্ধে এত ভয়ঙ্কর হয়ে ওঠো কেন? রোহিত ঠাট্টাছলে উত্তর দেন, দুদেশের ক্রিকেট লড়াইটা সাংঘাতিক বলে। ২০১৯ এ এজবাস্টনে রোহিতের রানের মাথায় ক্যাচ ফস্কান তামিম। রোহিত সেই কথা মনে করিয়ে দিয়ে বলেন, ক্যাচ মিসের জন্যে তুমি কিভাবে ট্রোলড হয়েছিলে আমার মনে আছে।
তামিমও ভোলেননি সেই দিনটির কথা। বলেন, সেদিন তুমি চল্লিশ করে ফেলার পর বুঝেছিলাম আমাদের কপালে দুঃখ আছে। রোহিত সেদিন একশো চার রান করেন। ফেসবুকে ভারত বাংলাদেশের দুই তারকার চ্যাট খুব উপভোগ্য হয়। অনূর্ধ উনিশ বিশ্বকাপে ভারতকে হারিয়ে বাংলাদেশের চ্যাম্পিয়ন হওয়ার ঘটনাটিকে রোহিত যুগান্তকারী বলে বর্ণনা করেন।

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

Sakib

২০২০-০৫-২০ ১৯:১৩:১৮

তোমাদের কিছু বিয়াদব খেলোয়ার আছে, তাছাড়া দূর্নীতিতে অনেক এগিয়ে, সিমান্তে অন্যায় ভাবে নিরিহ মানুষ হত্যা কর, মদ গাজা বাবা ফেনসেডিল নেশা জাতীয় পণ্যর বাজার বানিয়েছে বাংলাকে, এখন রোহিংগা হত্যাকে সমর্থন করে এবং ভারতের মানুষ এখন মুসলিম বিদ্বেষী।

shiblik

২০২০-০৫-১৭ ০১:৩০:০৪

বহু বছর আগে আমরা ভারতের ক্রিকেট টীমকে পছন্দ করতাম। এখন করিনা কারন তাদের ম্যাচ ফিক্সিং, দাদাগিরি, মোদী...আর বলা জাবেনা... অসুবিধা আছে।

Abdus Salam

২০২০-০৫-১৬ ০৭:১৭:০৮

কারণ তোমরা অবিরাম অন্যায়ভাবে মুসলিমদের হত্যা করে যাচ্ছ সেই সাতচল্লিশ সাল থেকে আজ পর্যন্ত

আপনার মতামত দিন

কলকাতা কথকতা অন্যান্য খবর



কলকাতা কথকতা সর্বাধিক পঠিত