বাধ্যতামূলক নামাজ আদায় সংক্রান্ত সেই নোটিশ বাতিল

অনলাইন ডেস্ক

অনলাইন ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০, মঙ্গলবার, ১০:২৬ | সর্বশেষ আপডেট: ৫:৫৩

গাজীপুরের মাল্টিফ্যাবস লিমিটেড নামের একটি পোষাক কারখানার শ্রমিকদের মসজিদে গিয়ে জোহর, আসর ও মাগরিবের নামাজ আদায় করার আদেশটি বাতিল করেছে  কর্তৃপক্ষ। গতকাল সোমবার আদেশটি বাতিল করেছে কারখানটি।

কারখানার নির্বাহী পরিচালক আবদুল কুদ্দুস স্বাক্ষরিত নতুন জারি করা ওই নোটিশে বলা হয়, গত ৯ই ফেব্রুয়ারি নোটিশের পরিপ্রেক্ষিতে নামাজের জন্য মুসলমান কর্মকর্তাবৃন্দের উপস্থিতি বাড়ানোর জন্য যে নোটিশ দেয়া হয়েছিল এটি শুধু নামাজের উৎসাহ প্রদানের জন্য করা হয়েছিল। প্রকৃতপক্ষে বেতন কর্তনের কোনো উদ্দেশ্য ছিল না। ভুলবশত বেতন কর্তনের বিষয়টি উল্লেখ থাকায় আমরা আন্তরিকভাবে দুঃখিত। এ নোটিশ জারির পর পূর্ববর্তী নোটিশটি বাতিল বলে গণ্য হলো। পূর্ববর্তী নোটিশ দ্বারা যদি কেউ বিভ্রান্ত হয়ে থাকেন বা মনে কষ্ট পেয়ে থাকেন এর জন্য আমরা পুনরায় সকলের কাছে আন্তরিকভাবে দুঃখ প্রকাশ করছি।

মাল্টিফ্যাবস কারখানার অ্যাকাউন্টস অ্যান্ড ফাইন্যান্স বিভাগের সহকারী মহাব্যবস্থাপক মোস্তাক আহমেদ জানান, ৯ই ফেব্রুয়ারি জারি করা নোটিশটি হয়েছিল মূলত কারখানার সহকারী ব্যবস্থাপক থেকে তদুর্ধ্ব পদধারী কর্মকর্তাদের জন্য। সব মিলিয়ে এরকম কর্মকর্তা হবে প্রায় ৭০ জন।
বিষয়টি কেউ কেউ মনে কষ্ট পাওয়ায় সোমবার সেই নোটিশটি প্রত্যাহার করে নেয়া হয়েছে। বিষয়টি ছিল কারখানার একান্ত নিজস্ব ব্যাপার।

কারখানার উৎপাদন ব্যবস্থাপক ফরহাদুর রেজা ফারিন জানান, এ কারখানায় প্রতিমাসে ১৮ লাখ পিস তৈরি পোশাক উৎপাদন হয়। এ কারখানায় সকল ধর্মের লোক নির্বিগ্নে তাদের ধর্ম-কর্ম পালন করতে পারেন। কাউকে বাধ্য করা হয় না। সবাই তাদের উৎসব বোনাস পেয়ে থাকেন। কারখানাটি রপ্তানিতে জাতীয় পুরস্কার পায়। এ কোম্পানি জাপান, রাশিয়া ও আমেরিকার বেশ কিছু দেশে তাদের ব্যবসা করছে। ২০১৬ সালে তাদের রপ্তানি আয় ছিল ৯ কোটি ডলার।

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

হাসিবুল হক হাসিব

২০২০-০২-১৮ ১৮:৫৪:২৪

এত যারা নামাজ নামাজ করেন তারা পারেন তো সব পাপকাজ ছেড়ে দিয়ে দেখান চরিত্রের জোর কতোখানি। অন্য কিছু বাদ দিতে না পারেন তো শুধু মিথ্যা বলাটা ছেড়ে দিয়েই দেখান। নিজেরা নামাজ-রোজা করে তার পাশাপাশি পাপী জীবন যাপন করবেন, আর অন্যের ঘাড়ে চেপে ধরবেন নামাজ-রোজার জন্য - এই কমেডি না করলে হয় না? এমনকি বুজুর্গ মাওলানা সাহেবরাও দেখি ধর্মের বয়ানে বসে এমন সব আজব আজব নির্লজ্জ মিথ্যা বলেন, কী আর বলবো। ইউটিউব নাড়াচাড়া করলেই আজকাল বহু নমুনা দেখা যায়, শোনা যায়। তাছাড়া কতো রকম খবরই তো আসে সংবাদমাধ্যমে, বলতে আমাদেরই লজ্জা লাগে, যদিও যারা এসব করে তাদের কোনো লজ্জাই নেই। যার যার নিজের পছন্দমতো ধর্ম-উপাসনা করতে দিতে এত আপত্তি কিসের? কোন্ ঠ্যাকাটা পড়েছে অন্যের ঘাড়ে চেপে ধরার? নিজের মধ্যে গোলমাল থাকলেই এইসব বাড়াবাড়ির রোগে ধরে।

Mehedi

২০২০-০২-১৮ ০৩:৫৮:৩৩

আপনি কাউকে হাড়ভাঙ্গা পরিশ্রম বা ময়লার ট্যাংকি পরিস্কারের কাজ দিলেন, লোকটি যদি আপনার প্রস্তাবিত পারিশ্রমিকের বিনিময়ে সম্মত হয়, তাহলে সেটা বেআইনী নয়। যৌনপল্লীর কাউকে কিছু টাকার বিনিময়ে যৌনকর্মের জন্য ভাড়ায় নিলেন সেটাও আইনে সিদ্ধ। কাউকে রাজনৈতিক সভা বা মিছিলের জন্য ভাড়ায় নিলেন সেটাতেও আপত্তি নাই। যতোসব আপত্তি হলো শ্রমিককে শ্রমঘন্টার মধ্যেই যদি নামাজ পড়তে নির্দেশ করেন তাহলে। ধর্মীয় কাজে কাউকে বাধ্য করা যাবে না, এই যুক্তিতে গাজীপুরে (রপ্তানীতে জাতীয় পুরস্কারপ্রাপ্ত) মাল্টিফ্যাবস লিমিটেডের কারখানার শ্রমিকদের নামাজের নির্দেশ দেওয়া বে আইনী বলে দাবি করেছেন আইনমন্ত্রী এবং এ বিষয়ে প্রশ্ন তুলেছে বিভিন্ন মিডিয়া। আপনি শ্রমিককে ৮ঘন্টা শ্রমের বিনিময়ে বেতন দিয়ে ময়লার ট্যাংকিও সাফ করাতে পারবেন, পারবেন সবই করাতে, কিন্তু মুসলিম শ্রমিককে শ্রম ঘন্টার মধ্যে কাজ বাদ দিয়ে নামাজ পড়তে বলতে পারবেন না। কী অদ্ভুত বৈপরিত্য! কারখানাটির কতৃপক্ষের যুক্তিগুলো আমি পড়েছি। নিরপেক্ষ দৃষ্টিকোণ থেকে অসাধারণ মনে হয়েছে। তাদের যুক্তি, বিভিন্ন বিভাগের শ্রমিকদের মধ্য সৌহার্দ্য এবং বসা কাজের মধ্যে চতুর্থ তলায় নামাজ পড়তে গেলে কিছুটা ব্যয়ামের ফলে কর্মচঞ্চলতা বৃদ্ধি পায় নামাজের মাধ্যমে। শ্রমিকরা যে কাজে শ্রম দিয়ে থাকেন তাতে সব সময় সবাই সন্তষ্ট থাকেন না, নিছক টাকার জন্যই করে থাকেন। তবুও সেটা কিন্তু আইনসিদ্ধ। আপত্তি কেবল নামাজের ব্যপারে! আপনি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শার্ট, প্যান্ট, হাফ প্যান্টসহ যেকোনো ড্রেস নির্ধারণ করতে পারবেন, কিন্তু পারবেন না স্কার্ফ বা হিজাবকে ড্রেসের আওতায় আনতে। সেটা করলে স্বাধীনতা খর্ব হয়ে যাবে। গান-নাচের অনুষ্ঠানে সবার অংশগ্রহণ বাধ্যতামূলক করতে পারবেন, কিন্তু মুসলিমদের নামাজের নির্দেশ দিলেই স্বাধীনতা নষ্ট হয়ে যাবে! চাকুরি করতে হলে ক্লীন শেভড হতে হবে বা নেকাব পরা যাবে না, এমন শর্ত দিলে ধর্ম পালনের স্বাধীনতা নষ্ট হয় না, স্বাধীনতা নষ্ট হয় উল্টো শর্ত দিলে! এ হলো আমাদের সেক্যুলার বন্ধুদের যুক্তি! Post from - Shaikh AhmadUlllah

MAMUN

২০২০-০২-১৮ ১৬:২৭:২৪

"আপনি মালিক। আপনার শ্রমিককে টেবিলের কাজ বাদ দিয়ে ৮ ঘন্টা পায়খানা সাফ করতে বাধ্য করতে পারবেন নো প্রবলেম। পুরো ৮ ঘন্টা অধীনস্ত দের মা-বাপ তুলে গালি গালাজ করতে বাধ্য করতে পারবেন- নো প্রবলেম। আপনার অফিসারদের হার্ড-ড্রিংক্স পার্টিতে মদপানে বাধ্য করতে পারবেন- সমস্যা নেই তো। আপনি শ্রমিকদের ১ মিনিট বসতে না দিয়ে দাড় করিয়ে রেখে নিজে লেকচার দিয়ে শুনতে বাধ্য করতে পারবেন, নো প্রবলেম। নিজের বাসাবাড়ির ফুট-ফরমায়েশ সহ যা মন চায় তা করতে বাধ্য করতে পারবেন। সমস্যা নেই। সমস্যা হল- নামাজ পড়াতে পারবেন না।

Md.Mohiuddin Monsi

২০২০-০২-১৮ ০২:৩২:২৫

আল্লাহ তা'য়ালা কজন বালেগ পুরুষ / বালেগা মহিলার উপর দৈনিক পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ আদায় করা বাধ্যতামূলক করে দিয়েছেন। গার্মেন্ট কর্তৃপক্ষ আল্লাহ তা'য়ালার নির্দেশই পালন করেছেন। এটা করে গার্মেন্ট কর্তৃপক্ষ কোনো অপরাধ করেনি।

H.M. MAHFUJUR RAHMAN

২০২০-০২-১৮ ১৪:৩৮:৫৯

আল্লাহ যেটাকে বাধ্যতামুলক করেছে সেটা বাতিল করার ক্ষমতা মানুষের নেই। তারা একটা ভাল উদ্যোগ নিয়েছিল তবে বেতন কাটার ব্যাপারটা ঠিক হয়নি। এখন কারও চাপে পুরো নোটিশ বাতিল করে দিলে এর বিচার আল্লাহ করবেন

Faruque Ahmed

২০২০-০২-১৮ ১৩:৪৯:৩৪

Voy Voy Voy- Whom are you afraid of.

Haque

২০২০-০২-১৮ ১৩:১০:৩৫

অবশেষে সঠিক জিনিস করা হয়েছে | ধর্মীয় জিনিস বাধ্যতামূলক করা উচিত নয়

হাসিব

২০২০-০২-১৮ ১১:২৯:৩০

এটা নিশ্চয়ই অদৃশ্য কারও চাপে করা হয়েছে, ইস্লামফবিয়ায় আক্রান্ত কারও চুলকানি হয়েছে।

আপনার মতামত দিন



অনলাইন অন্যান্য খবর

মধ্যে রাতে ফার্মেসীতে ডাকাতি

ভিডিও ফুটেজ ঘিরে তদন্ত

৩ এপ্রিল ২০২০

সাঈদীর মুক্তি চেয়ে ফেসবুকে স্ট্যাটাস, ছাত্রলীগ নেতা বহিষ্কার

৩ এপ্রিল ২০২০

জামায়াতের কেন্দ্রীয় নেতা ও যুদ্ধাপরাধী মামলায় আমৃত্যু সাজাপ্রাপ্ত আসামি মাওলানা দেলোয়ার হোসেন সাঈদীর মুক্তি চেয়ে ...

শ্রীমঙ্গলে একদিনে ৪২ মামলা, জরিমানা ২৭ হাজার ৭০০ টাকা

৩ এপ্রিল ২০২০

শ্রীমঙ্গল উপজেলায আজ শুক্রবার সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করার লক্ষে দিনব্যাপী কঠোর অভিযান পরিচালনা করা হয়েছে। ...

মাধবপুরে প্রবাসীকে পিটিয়ে হত্যা

৩ এপ্রিল ২০২০

হবিগঞ্জের মাধবপুরে প্রবাসীর কাছ থেকে টাকা নিতে তাকে পিটিয়ে আহত করা হয়েছে। গুরুতর আহত অবস্থায় ...

সিলেটের মেয়রের আহবানে সাড়া দিলেন স্ত্রী শ্যামা হক

৩ এপ্রিল ২০২০

সিলেট সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরীর অনুরোধে সাড়া দিয়েছেন শ্যামা হক চৌধুরী। মেয়রের অনুরোধে ...



অনলাইন সর্বাধিক পঠিত



মধ্যে রাতে ফার্মেসীতে ডাকাতি

ভিডিও ফুটেজ ঘিরে তদন্ত