ধাক্কাধাক্কির তথ্য পেয়েছেন তদন্ত কর্মকর্তা

স্টাফ রিপোর্টার

এক্সক্লুসিভ ২৩ জানুয়ারি ২০২০, বৃহস্পতিবার | সর্বশেষ আপডেট: ১১:১৭

ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে বিএনপি সমর্থিত মেয়র পদপ্রার্থী তাবিথ আউয়ালের ওপর হামলার অভিযোগের প্রাথমিক তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিয়েছেন সংশ্লিষ্ট তদন্ত কর্মকর্তা। তাতে ঠেলা, ধাক্কা-ধাক্কির তথ্য পাওয়া গেছে। তবে সুনির্দিষ্ট কারও বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করার বিষয়ে কিছু উল্লেখ করা হয়নি। তদন্তও পুরোপুরি শেষ হয়নি। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, তাবিথ আউয়াল মিছিলের বিষয়ে সংশ্লিষ্ট থানাকে কিছু জানায়নি। এ অবস্থায় তাবিথ আউয়ালসহ সব প্রার্থীকে প্রচারের বিষয়ে সংশ্লিষ্ট থানাসহ রিটার্নিং কর্মকর্তাকে জানানোর জন্য সতর্ক করে চিঠি দিয়েছেন উত্তরের রিটার্নিং কর্মকর্তা আবুল কাসেম। যদিও হামলার সময় সংশ্লিষ্ট থানা পুলিশ সেখানে উপস্থিত ছিল। পুলিশের সামনেই হামলার ঘটনা ঘটে।

উত্তর সিটির রিটার্নিং কর্মকর্তাকে দেয়া চিঠিতে তদন্ত কর্মকর্তা ইমরান শাহারীয়ার বলেছেন, তাবিথ আউয়ালের আনা অভিযোগ ফৌজদারী অপরাধ সংশ্লিষ্ট, যা মোবাইল কোর্টে নয়, দ্বন্ডবিধি-১৮৬০ মতে বিচার্য। এ বিষয়ে বিস্তারিত তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা যেতে পারে। গতকাল বৃহস্পতিবার বিকালে আবুল কাসেম সাংবাদিকদের বলেন, বিস্তারিত তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য বলা হয়েছে প্রতিবেদনে। বিস্তারিত তদন্ততো ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে করা যাবে না। এটার জন্য সময় প্রয়োজন। আজকের মধ্যে এই চিঠি আমি কমিশনে পাঠিয়ে দেব। কমিশন নিশ্চয় এ বিষয়ে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করবে। তিনি বলেন, এ ধরনের ঘটনা যেন আর না ঘটে তাই তাবিথ আউয়ালসহ সবাইকে চিঠি দিয়েছি। তাতে বলেছি, যেন প্রচারে যাওয়ার ২৪ ঘণ্টা আগে পুলিশ ও ইসিকে বিষয়টি জানায়। তদন্ত প্রতিবেদনে বলা হয়, দারুস সালাম থানাধীন বড়বাজার এলাকায় আওয়ামী লীগ সমর্থিত ৯ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর প্রার্থী মুজিব সরোয়ার মাসুম ও তার সঙ্গীয় নেতাকর্মী সমর্থক এবং ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র প্রার্থী তাবিথ আউয়াল ও তার দলীয় নেতাকর্মী সমর্থকরা মুখোমুখি হওয়ার ফলে যে ঠেলা, ধাক্কাধাক্কির ঘটনা ঘটে এ সংক্রান্ত্রে উভয় পক্ষ থেকে দাখিল করা অভিযোগ প্রাপ্তি সাপেক্ষে অনুসন্ধান করানো হয়। অনুসন্ধানকালে উভয় পক্ষ সরু রাস্তায় মুখোমুখি হওয়ার কালে উভয়পক্ষের মাঝে ঠেলা, ধাক্কা-ধাক্কি হয়েছে। নির্বাচনি প্রচারের বিষয়টি সংশ্লিষ্ট থানাকে জানানো হয়নি বলে প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে। এ অবস্থায় প্রচারে যাওয়ার ২৪ ঘণ্টা আগে সংশ্লিষ্ট থানা ও রিটার্নিং কর্মকর্তাকে জানানোর জন্য নির্দেশ দিয়েছেন আবুল কাসেম। গত ২১শে জানুয়ারি রাজধানীর দারুস সালাম থানাধীন বড়বাজার এলাকায় তাবিথ আউয়ালের ওপর হামলার অভিযোগ ওঠে আওয়ামী লীগ সমর্থিত ৯ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর প্রার্থী মুজিব সরোয়ার মাসুম ও তার সঙ্গীয় নেতাকর্মী সমর্থকের বিরুদ্ধে। এ বিষয়ে তদন্ত প্রতিবেদন ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে দিতে বলে ইসি। অন্যদিকে মাসুমের প্রার্থিতা বাতিল ও শাস্তি নিশ্চিত করতে নির্বাচন কমিশনে চিঠি দেন তাবিথ আউয়াল। এবিষয়ে তাবিথ আউয়াল মানবজমিনকে বলেন, সেদিন আমাদের উপরে একবার নয়, দুইবার হামলা হয়েছে আমরা তার প্রমাণ হিসাবে ভিডিও ফুটেজও অভিযোগের সাথে জমা দিয়েছি। দারুসসালাম থানায় অভিযোগ করতে গেলে তার প্রথমে নিতে চায়নি। এরপর নির্বাচন কমিশন থেকে বলার পরে তারা অভিযোগ নিয়েছে। আর প্রচারণার খবর ২৪ ঘণ্টা আগেই সবাইকে জানানো হয় না হলে সেদিন পুলিশ কিভাবে খবর পেলো?
আতিকের বিরুদ্ধে অভিযোগের সত্যতা পায়নি ইসি: এদিকে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন নির্বাচনের আওয়ামী লীগ সমর্থিত মেয়র প্রার্থী আতিকুল ইসলামের বিরুদ্ধে আচরণবিধি লঙ্ঘনের দুটি অভিযোগের একটিরও সত্যতা পাননি রিটার্নিং কর্মকর্তা মো. আবুল কাসেম। গতকাল বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় আগারগাঁওয়ে ইটিআই ভবনে এ তথ্য জানান উত্তরের রিটার্নিং কর্মকর্তা। একটি অভিযোগের বিষয়ে আবুল কাসেম বলেন, প্রথম যে অভিযোগ ছিল আতিকুল ইসলাম আচরণবিধি ভঙ্গ করেছেন। ওইখানে তিনি যে ছবিগুলো দিয়েছেন, সেগুলো ওই দিনের ছিল না। ওখানে চারটা ছবি ছিল। তার মধ্যে দুইটা ছবিতে তারিখ ও সময় বলা ছিল। ওই ছবি দুটোতে আতিকুল ইসলাম ছিলেন না। অন্য যে দুটো ছবি, সেখানে আতিকুল ইসলাম ছিলেন। আমার কথা হল, একই ক্যামেরা দিয়ে তুললে দুটোতে থাকবেন আর দুটোতে থাকবেন না কেন? ওই ছবিগুলো ফেক (ভুয়া) ছিল। আরেকটা অভিযোগের বিষয় স্মরণ নেই বলে জানান রিটার্নিং কর্মকর্তা। তবে সেখানেও অভিযোগের সত্যতা পাননি বলেও জানান আবুল কাসেম। এর আগে ১৯ জানুয়ারি (রোববার) ইসির নির্বাচন পরিচালনা-২ অধিশাখার উপসচিব মো. আতিয়ার রহমান এক চিঠিতে বলেছিলেন, ‘বিএনপি মনোনীত মেয়র পদপ্রার্থী তাবিথ আউয়ালের ‘নৌকা প্রতীকের প্রার্থীর পক্ষে আমার নির্বাচনি প্রচারণারত মাইক্রোফোন ভাঙচুর’ এবং ‘নৌকা প্রতীকের প্রার্থীর আচরণবিধি লঙ্ঘন’ বিষয়ক গত ১৩ জানুয়ারি দাখিল করা আবেদনের বিষয়ে বিধি মোতাবেক ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য নির্দেশিত হয়ে অনুরোধ করা হলো।

আপনার মতামত দিন



এক্সক্লুসিভ অন্যান্য খবর

করোনা ভাইরাসে

নতুন চিকিৎসা ১২ ঘণ্টায় সফলতা!

১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০

সাক্ষাৎকারে মানারাত ইউনিভার্সিটির ভিসি

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান কাজ জ্ঞান সৃষ্টি করা

১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০

আইসিস বধূ শামীমা এখন যেমন

১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০

১৫ রঙের ফুল এখন গাজীপুরের গবেষণা মাঠে

লিলিয়াম চাষে নতুন সম্ভাবনা

১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০



এক্সক্লুসিভ সর্বাধিক পঠিত



সাক্ষাৎকারে মানারাত ইউনিভার্সিটির ভিসি

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান কাজ জ্ঞান সৃষ্টি করা

১৫ রঙের ফুল এখন গাজীপুরের গবেষণা মাঠে

লিলিয়াম চাষে নতুন সম্ভাবনা