প্যারিসে পকেটমার, চোর এবং ছিনতাইকারী ধরার বিশেষ পুলিশ ইউনিট গঠিত

আবদুল মোমিত (রোমেল), ফ্রান্স থেকে

দেশ বিদেশ ১৫ জানুয়ারি ২০২০, বুধবার

বিশ্বের সবচেয়ে বেশিসংখ্যক পর্যটকের গন্তব্যস্থল প্যারিস। প্রতি বছর এখানে প্রায় ৩  কোটি বিদেশি পর্যটক বেড়াতে আসেন। শহরটির অনেক উল্লেখযোগ্য দর্শনীয় স্থানসমূহের মধ্যে রয়েছে আইফেল টাওয়ার,  নোত্র দাম গির্জা, শঁজেলিজে সড়ক, আর্ক দ্য ত্রিয়োম্‌ফ, বাজিলিক দ্যু সাক্রে ক্যর,  লেজাভালিদ্‌, পন্তেওঁ, গ্রঁদ আর্শ, পালে গার্নিয়ে, ল্যুভ্র জাদুঘর, ম্যুজে দর্সে, ম্যুজে নাসিওনাল দার মোর্দেন ইত্যাদি।
ফ্রান্সের প্যারিসে পকেটমার, ছিনতাইকারীদের কর্মকাণ্ড এতই বেশি যে, ফ্রান্স সরকার অবশেষে এই পকেটমার, চোর, ছিনতাইকারীদের কর্মকাণ্ড নিয়ন্ত্রণ করার জন্য বিশেষ পুলিশ ইউনিট গঠন করতে বাধ্য হয়েছে! এই পুলিশ ইউনিটের কাজই হবে প্যারিসের মেট্রো, বাস, ট্রাম এবং ট্রেন  স্টেশনসহ সকল জনসমাগম ও ট্যুরিস্ট স্থাপনায় অনবরত রাউন্ড দেয়া! প্যারিসের চুরি, পকেটমারি, ছিনতাইয়ের কারণে ট্যুরিস্টদের কাছে ফ্রান্স সরকার বিব্রত হচ্ছে! ফ্রান্সের সুনাম নষ্ট হচ্ছে! ফ্রান্স পুলিশের হিসাব মতে, ২০১৯ সালে শুধু প্যারিসেই ৫০ হাজার পকেটমার ও ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটেছে! তার মধ্যে মেট্রো, বাস, ট্রাম, ট্রেন ট্রান্সপোর্টে ঘটেছে ৩১ হাজার পকেটমার ও ছিনতাইয়ের ঘটনা। যা ২০১৮ সাল থেকে ৩০% বেশি ! এই পকেটমার, চুরি, ছিনতাইয়ের ঘটনা  কোনোভাবেই নিয়ন্ত্রণে আনা যাচ্ছে না! ফ্রান্স পুলিশ বলছে, ৫০ হাজার পকেটমার বা ছিনতাই শুধু পুলিশ রেকর্ডভুক্ত হয়েছে। প্রকৃতপক্ষে কত সংখ্যক ঘটনা ঘটেছে তার  কোনো হিসাব নেই। প্যারিসের সরকারি প্রসিকিউটর জল্কসু বলেন, ২০১৯ সালে প্যারিসে যেসব পকেটমার ও ছিনতাইকারীকে সাজা দেয়া হয় তা মোট ১১৩ বছর! চুরি, পকেটমার, ছিনতাই, মানবপাচার ইত্যাদির অভিযোগে বেশ কয়েকটি রোমানিয়ান অপরাধ চক্রকে আইনের আওতায় আনা হয়েছে! বর্তমানে প্যারিসের মেট্রো, বাস, ট্রাম, ট্রেন পাবলিক ট্রান্সপোর্টগুলোতে পকেটমার, চোর, ছিনতাইকারী ধরার যে বিশেষ পুলিশ ইউনিট গঠন করা হয়েছে তারা খুব শিগগিরই কাজ শুরু করবে! ফ্রান্স সরকার আশা করছে প্যারিসে পকেটমার, চুরি, ছিনতাইয়ের ঘটনা পর্যায়ক্রমে নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ সক্ষম হবে। দুই হাজার বছরেরও বেশি ঐতিহ্যের অধিকারী এই নগরী বিশ্বের অন্যতম বাণিজ্যিক ও সাংস্কৃতিক কেন্দ্র। রাজনীতি, শিক্ষা, বিনোদন, গণমাধ্যম, পোশাকশৈলী, বিজ্ঞান ও শিল্পকলা- সব দিক থেকে প্যারিসের গুরুত্ব ও প্রভাব এটিকে অন্যতম বিশ্বনগরীর মর্যাদা দিয়েছে।
জাতিসংঘ শিক্ষা, বিজ্ঞান ও সংস্কৃতি সংস্থা তথা ইউনেস্কোর সদর দপ্তর এই শহরে অবস্থিত। ছিনতাই এবং পকেটমারের কারণে টুরিস্টদের কাছে ফ্রান্স সরকার বিব্রত হচ্ছে!  ফ্রান্সের সুনাম নষ্ট হচ্ছে!  তাই  পুলিশের এই   বিশেষ  ইউনিটটি গঠিত হয়েছে।

আপনার মতামত দিন

দেশ বিদেশ অন্যান্য খবর

কমলনগরে অগ্নিকাণ্ডে তিন বসতঘর পুড়েছে

২৫ জানুয়ারি ২০২০

লক্ষ্মীপুরের কমলনগরে অগ্নিকাণ্ডে তিনটি বসতঘর সম্পূর্ণ পুড়ে গেছে। বৃহস্পতিবার গভীর রাতে উপজেলার হাজিরহাট ইউনিয়নের মৌলভীরটেক ...

মেডিকেল অফিসার থাকলেও কনসালটেন্ট সংকট খুলনার অধিকাংশ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে

২৫ জানুয়ারি ২০২০

প্রতিমাসেই সিভিল সার্জনের দপ্তর থেকে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরে প্রতিবেদন পাঠিয়ে জনবলের চিত্র তুলে ধরা হয়। যার ...

রোহিঙ্গা গণহত্যা

আইসিজে’র আদেশে যা বলা হয়েছে

২৫ জানুয়ারি ২০২০

রাজধানীতে শিশু ধর্ষণের ঘটনায় গ্রেপ্তার ১

২৫ জানুয়ারি ২০২০

রাজধানীর সবুজবাগের বাসাবো এলাকায় শিশু ধর্ষণের প্রধান আসামিকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব। তার নাম মো. জুবায়ের ...

চট্টগ্রামে গণহত্যা দিবসে শহীদদের স্মরণ

২৫ জানুয়ারি ২০২০

১৯৮৮ সালের এই দিনে (২৪ জানুয়ারি) চট্টগ্রামের লালদীঘি ময়দানের প্রায় এক কিলোমিটার এলাকাজুড়ে পরিকল্পিত হত্যাকাণ্ড ...

গণঅভ্যুত্থান দিবস আজ

২৪ জানুয়ারি ২০২০

বাঙালি জাতির স্বাধীকার আন্দোলনের অন্যতম প্রধান মাইলফলক ঊনসত্তরের ঐতিহাসিক গণ-অভ্যুত্থান দিবস আজ। মুক্তিকামী নিপীড়িত জনগণের ...





দেশ বিদেশ সর্বাধিক পঠিত