‘সান্টোকির বিষয়ে তদন্ত করবে আকসু’

স্পোর্টস রিপোর্টার

খেলা ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯, রোববার

‘বঙ্গবন্ধু বিপিএল’-এর উদ্বোধনী ম্যাচেই বিতর্ক ছড়িয়েছেন ক্রিসমার সান্টোকি। ক্যারিবীয় এই পেসারের করা অদ্ভুত দুই ওয়াইড ও নো বল নিয়ে সন্দেহ দানা বেঁধেছে। তিনি এবার খেলছেন সিলেট থান্ডারের হয়ে। সিলেট দল ও বিসিবির পরিচালক তানজিল চৌধুরী এই অভিযোগ তুলেছেন। তার সন্দেহ সান্টোকি জড়িত থাকতে পারেন স্পষ্ট ফিক্সিংয়ের সঙ্গে। যদিও তার এমন অভিযোগের পরও এই পেসার খেলেছেন সিলেটের দ্বিতীয় ম্যাচে। তাই প্রশ্ন উঠেছে কিভাবে তিনি খেললেন! শুধু তাই নয় এমন অভিযোগের পর বিসিবি ও বিপিএল গভর্নি কাউন্সিলেরই ভাবনা কী? এ বিষয়ে বিসিবি পরিচালক ও বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিলের চেয়ারম্যান শেখ  সোহেল জানিয়েছেন তদন্ত হবে। তবে কারো মৌখিক বক্তব্যের উপর ভিত্তি করে এখনই সান্টোকির বিরুদ্ধে কোন ব্যবস্থা নিতে পারছেন না তারা।
তিনি বলেন, ‘দেখেন বিষয়টি অত্যন্ত স্পর্শকাতর। আমরা কারো মুখের কথা শুনেই ব্যবস্থা নিতে পারি না। বিপিএলে প্রতিটি দলের সঙ্গেই একজন করে এন্টি করাপশন ইউনিটের (আকসু) সদস্য আছেন। তারা বিসিবির আকসুকে এ নিয়ে রিপোর্ট দিবেন। এরপর আকসু তদন্ত করে যদি কিছু পায় তাহলেই আমরা তার (সান্টোকি) বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে পারবো। প্রমাণ ছাড়া কোন কিছুই করতে পারছি না।’
একই সুরে কথা বলেছেন বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিলের সদস্য সচিব ইসমাইল হায়দার মল্লিক। তিনি বলেন, ‘পুরো বিষয়টি দেখবে আমাদের এন্টি করাপশন ইউনিট (আকসু)। তারা যদি মনে করে যে তদন্ত করে দেখার মত  সেটি করবে। এখানে বিসিবি ও গভর্নিং কাউন্সিলের আগে থেকে কোন কিছু করণীয় নেই। যদি এমন কিছু হয়ে থাকে সেটি দেখবে আকসুই।’ এবারের বিপিএলের প্রথম ম্যাচে চট্ট্রগামের বিপক্ষে ১৬২ রান করে সিলেট। কিন্তু তা টপকে যেতে বেগ পেতে হয়নি চট্টগ্রামকে। কারণ বোলিংটা ছিল যাচ্ছেতাই। এর মধ্যে সান্টোকির বল হাতে ওয়াইড ও নো ছিল বড়  বেশি আলোচনায়। যা দেখার পর থেকেই গুঞ্জন উঠে ফিক্সিংয়ের। তবে প্রথম ম্যাচের পরই সিলেটের পরিচালক হিসেবে দায়িত্ব পালন করা তানজিল চৌধুরীও দেন বিস্ময়কর তথ্য।  বিসিবির এই পরিচালক ও ফ্যাসিলিটিস বিভাগের চেয়ারম্যানের বরাত দিয়ে একটি দেশি সংবাদমধ্যম জানায় তার বোলিং নিয়ে সন্দেহের কথা। তিনি বলেছেন, ‘সান্তোকির মতো কিছু খেলোয়াড়কে স্পন্সররাই নিয়েছে। এজেন্টদের সঙ্গে তারাই যোগাযোগ করেছে। সে এমন একটি নো বল করেছে, যেটি খুবই সন্দেহজনক। আমি স্পন্সরদের কাছে জানতে চেয়েছিলাম, আপনারা প্রথম একাদশ গড়া নিয়ে কোনো ধরনের হস্তক্ষেপ করেছেন কি না। উনারা বলেছেন ‘না’। এখন টিম ম্যানেজমেন্টের সঙ্গে কথা বলতে হবে। জানতে হবে তাকে খেলানোর বিষয়ে কেউ তাদের প্রভাবিত করেছে কি না। কারণ এই ছেলেটি তো মনে হচ্ছে স্পট ফিক্সিংয়ে জড়িত।’ তার এমন বক্তব্যে শুরু হয় বিতর্কের ঝড়। তবে এত কিছুর পরও সিলেট তাদের দ্বিতীয় ম্যাচে রাজশাহীর বিপক্ষে সান্তোকিকে একাদশে রেখেছিল। যা বিতর্ককে আরো উষ্কে দিয়েছে। বঙ্গবন্ধু বিপিএলে এবার ৭টি দলেই আছেন বিসিবির একজন করে পরিচালক। তারা দলগুলোর পরিচালক হিসেবেও দায়িত্ব পালন করছেন। সেই হিসেবে সিলেটের দায়িত্ব তানজিল চৌধুরী হাতে। এই বিষয়ে শেখ সোহেল বলেন, ‘আমরাতো বলেছি অবশ্যই তা তদন্ত করা হবে। আমরা বিপিএলে ফিক্সিংয়ের যে কলঙ্ক তা আর কোন দিনও লাগতে দিবো না। এই বিষয়ে আমরা সজাগ। আমাদের শক্তিশালী আকসু কাজ করছে। তারা সব সময় নজর রাখছে। যদি এমন কিছু হয় আমরাওতো চুপ করে বসে থাকবো না।’

আপনার মতামত দিন

খেলা অন্যান্য খবর

সেমিফাইনাল খেলতে চান জামাল

২১ জানুয়ারি ২০২০

টানা ৭ ম্যাচে গোল রোনালদোর

২১ জানুয়ারি ২০২০

ভাড়া করা হচ্ছে বিশেষ বিমান

২১ জানুয়ারি ২০২০

পাকিস্তান সফরে যেতে ভাড়া করা হচ্ছে বিশেষ বিমান। টাইগাররা সরাসরি পৌঁছাবেন লাহোরে। বিসিবির মিডিয়া ম্যানেজার ...





খেলা সর্বাধিক পঠিত