এই সরকার স্বৈরাচারের বাবা: ফখরুল

স্টাফ রিপোর্টার

অনলাইন ২২ নভেম্বর ২০১৯, শুক্রবার, ৬:১৮

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, অনেকেই বলেন এটি স্বৈরাচার সরকার। এরা স্বৈরাচার নয়, স্বৈরাচারের বাবা, ফ্যাসিবাদী। স্বৈরাচার হলে তাদের নূন্যতম একটা কিছু থাকে। আইয়ুব খান ছিল স্বৈরাচার, ডিক্টেটর তখনও এই অবস্থা ছিল না। এটি তো ফ্যাসিবাদ। শুক্রবার সুপ্রিমকোর্ট বার অ্যাসোসিয়েশন মিলনায়তনে এক আলোচনাসভা ও দোয়া অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের ৫৫তম জন্মদিন উপলক্ষে স্বেচ্ছাসেবক দল এ আলোচনা সভার আয়োজন করে।

মির্জা ফখরুল বলেন, সেলিম আল দীনের লেখা মুনতাসীর ফ্যান্টাসি নাটকে দেখেছি প্রধান চরিত্র সবকিছু খেয়ে ফেলে। তার পেটে প্রচণ্ড ক্ষুধা, সেজন্য সে চেয়ার-টেবিল, কাগজপত্র সবকিছু খেয়ে ফেলে।
এই সরকারও মুনতাসির ফ্যান্টাসির মধ্যে পড়েছে। তারা সবকিছুই খেয়ে ফেলেছ।

নেতাকর্মীদের উদ্দেশে মির্জা ফখরুল বলেন, হতাশ হওয়ার কিছু নেই। নেলসন ম্যাণ্ডেলা ২৭ বছর জেলে ছিলেন। আর সু চি ১০ বছর গৃহবন্দি ছিলেন। শেষ পর্যন্ত গণতন্ত্রের জয় হয়েছে। আমাদের নেত্রী খালেদা জিয়া কারাগারে। নিজের জন্য নয়, তিনি জনগণ ও গণতন্ত্রের জন্য কারাগারে।

তিনি আরও বলেন, যখন আমাদের মধ্যে হতাশা, ভয়ভীতি কাজ করছে তখন সুদূর থেকে তারেক রহমান লালমনিরহাটে ফোন করে বলছেন, কেমন আছেন, ভালো আছেন তো। সাহস হারাবেন না, আমরা সবাই আছি। আওয়ামী লীগের লোকজন মনে করেন, শুধু তারেক রহমান স্কাইপে আমাদের নেতাদের সঙ্গে কথা বলেন। তিনি প্রায় আমাদের তৃণমূলের নেতাদের সঙ্গে কথা বলেন। সেই জন্য বলছি, এত হতাশা ও অন্ধকারে মধ্যে আমার আশার আলো দেখতে পাই তারেক রহমানের নেতৃত্বের মধ্যে। এই নেতৃত্বে আমাদেরকে মুক্তি দেবে।

স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি শফিউল বারী বাবুর সভাপতিত্বে সভায় উপস্থিত ছিলেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শওকত মাহমুদ, যুগ্ম মহাসচিব হাবিব উন নবী খান সোহেল, স্বেচ্ছাসেবক দলের সাধারণ সম্পাদক আবদুল কাদের ভূঁইয়া জুয়েল প্রমূখ।

অনলাইন অন্যান্য খবর





আপনার মতামত দিন

অনলাইন সর্বাধিক পঠিত