প্রথম সেশনের পর আর ব্যাটিংয়ে নামেননি লিটন

স্পোর্টস রিপোর্টার

খেলা ২২ নভেম্বর ২০১৯, শুক্রবার | সর্বশেষ আপডেট: ৯:২৭

২৬ রানে ৪ উইকেট পড়ার পর চরম বিপর্যয়ে ক্রিজে এসেছিলেন লিটন দাস। এসেই দারুন ব্যাটিং শুরু করেন এই মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যান। বিপর্যস্ত দল তার  ব্যাটেই খুঁজছিল কিছুটা স্বস্তি। কিন্তু মোহাম্মদ শামির বলে মাথায় মাথায় আঘাত পান তিনি। এরপর আরও দুই বাউন্ডারি জবাব দিলেও বিরতির টিক আগে অসুস্থ বোধ করায় বেরিয়ে যান মাঠ থেকে। প্রথম সেশনের পর আর ব্যাটিংয়ে নামেননি তিনি লিটন। কনকাশন (মাথায় আঘাত জনিত সমস্যা) বদলিও নেই ড্রেসিং রুমে। তার পরিবর্তে ব্যাটিংয়ে নামেন পেসার এবাদত হোসেন।
২১তম ওভারের তৃতীয় বলে শামি মেরেছিলেন দুরন্ত এক বাউন্সার।
লিটন মাথা সরাতে না পারায় হন আঘাতপ্রাপ্ত। মাঠেই চলে তার চিকিৎসা। উঠেও দাঁড়ান তিনি। ঠিক পরের বলে শামি দেন আরেক বাউন্সার। এবার লিটন পুল করে পার করেন সীমানা। পরের ওভারে ইশান্ত শর্মাকেও বাউন্ডারি মারেন লিটন। কিন্তু এরপরই অস্বস্তিবোধ করায় তাকে তুলে নেয় টিম ম্যানেজমেন্ট।  লিটনের আহত হয়ে বেরিয়ে যাওয়ার সময় ৬ উইকেটে ৭৩ রান তুলে প্রথম সেশনও শেষ করে বাংলাদেশ। লিটন তখন অপরাজিত ২৪ রানে।
 লিটনের আহত হয়ে এভাবে বেরিয়ে যাওয়া আরও বড় শঙ্কা তৈরি করেছে। কারণ একাদশের বাইরে থাকা একমাত্র  ব্যাটসম্যান সাইফ হাসানও আছেন হাতের চোটে। এর আগে পারিবারিক কারণে দেশে ফিরে যাওয়া মোসাদ্দেক হোসেন সৈকতের বিকল্পও আনা হয়নি।  কোন কারণে এই ম্যাচে লিটন আর খেলতে না পারলে ‘কনকাশন বদলি’ নেওয়ারও সুযোগ পাবে না বাংলাদেশ। কারণ নিয়ম অনুযায়ী মাথায় আঘাতপ্রাপ্ত কোন ব্যাটসম্যানের বদলে নামতে পারেন আরেকজন ব্যাটসম্যান। বোলারের বদলে বোলার।

খেলা অন্যান্য খবর

অর্ণবের জন্য ভালোবাসা

১৫ ডিসেম্বর ২০১৯

আর্সেনাল-ম্যান সিটি লড়াই আজ

আরেক পরীক্ষায় কোচ গার্দিওলা

১৫ ডিসেম্বর ২০১৯





আপনার মতামত দিন

খেলা সর্বাধিক পঠিত