সৃজিত-মিথিলার বিয়ে ২২শে ফেব্রুয়ারি!

শেষের পাতা

বিনোদন ডেস্ক | ১৯ নভেম্বর ২০১৯, মঙ্গলবার | সর্বশেষ আপডেট: ১২:৩৭
সম্পর্ক নিয়ে সব গুঞ্জনের অবসান ঘটাতে যাচ্ছেন বাংলাদেশের মডেল-অভিনেত্রী রাফিয়া রশিদ মিথিলা ও কলকাতার খ্যাতনামা 
নির্মাতা সৃজিত মুখার্জি। এবার বিয়ে করতে চলেছেন তারা। গতকাল এমন খবরই প্রকাশ করেছে ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম টাইমস অব ইন্ডিয়া। প্রকাশিত সে খবরে বলা হয়, পরিচালকের কাছের একজন জানিয়েছেন যে, আসছে বছরের ফেব্রুয়ারিতে বিয়ে করবেন সৃজিত-মিথিলা। বিয়ের সম্ভাব্য তারিখ প্রকাশ করা হয়েছে ২২শে ফেব্রুয়ারি। এদিকে বহুদিন ধরেই কলকাতার নির্মাতা সৃজিত মুখার্জির সঙ্গে বাংলাদেশের মিথিলার প্রেমের গুঞ্জন শোনা যাচ্ছিলো।

কিন্তু সব সময় সম্পর্কের বিষয়টি অস্বীকার করে আসছেন তারা। চলতি সপ্তাহেও গুঞ্জন শোনা যাচ্ছিলো যে, মিথিলার পরিবারের কাছে বিয়ের প্রস্তাব নিয়ে বাংলাদেশে এসেছেন সৃজিত। এসময় দুজনকে ঢাকা আর্মি স্টেডিয়ামে সদ্য সমাপ্ত ফোকফেস্ট-এও একসঙ্গে দেখা গেছে।
তবে বিয়ের প্রস্তাবের বিষয়টি অস্বীকার করেছেন নির্মাতা। তিনি বলেন, এটা সত্য না। মিথিলার পরিবারের সঙ্গে আমার বহুদিন ধরেই সম্পর্ক। আমার তো নতুন করে তার পরিবারের সঙ্গে দেখা করার প্রয়োজন নেই। এদিকে এর আগে চলতি বছরের মার্চে কলকাতার একাধিক গণমাধ্যম খবর প্রকাশ করে, সৃজিত মুখার্জির জীবনে এসেছে নতুন এক রহস্যময় নারী।

তিনি হলেন বাংলাদেশের মিথিলা। খবরে বলা হয়েছিল, সৃজিতের সঙ্গে মিথিলার ঘনিষ্ঠতা দিনের পর দিন বাড়ছে। এমনকি বিভিন্ন পার্টিতেও একসঙ্গে দেখা যাচ্ছিলো তাদের। নিজের পরিচালিত ‘এক যে ছিল রাজা’ ছবিটি জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পাওয়ার পর খুশিতে একটি প্রাইভেট পার্টির আয়োজন করেছিলেন সৃজিত। সেই পার্টিতে কাছের বন্ধুদের সঙ্গে মিথিলাকে পরিচয় করিয়ে দেন তিনি। তারপর থেকে তাদের প্রেমের গুঞ্জন শুরু হয়। তবে সৃজিত-মিথিলা দুজনেই ‘ভালো বন্ধু’ বলে বিষয়টি বারবার এড়িয়ে যান। মূলত, বাংলাদেশের জনপ্রিয় গায়ক অর্ণবের একটি মিউজিক ভিডিওতে কাজের সুবাদে সৃজিতের সঙ্গে মিথিলার পরিচয় হয়। এরপর ফেসবুকের মাধ্যমে সৃজিত এবং মিথিলার নিয়মিত যোগাযোগ চলতে থাকে। নিজেদের মধ্যে অনেক মিল খুঁজে পাওয়ায় ভালো বন্ধুত্ব গড়ে ওঠে তাদের। গেল সেপ্টেম্বরে সৃজিতের জন্মদিনের কেক কাটাসহ বিভিন্ন ঘরোয়া অনুষ্ঠানেও দেখা যায় মিথিলাকে। তাকে নিয়ে পূজা মন্ডপেও ঘুরেছেন সৃজিত। কলকাতার আন্তর্জাতিক ফিল্ম ফেস্টিভ্যালে সময় কাটাতে দেখা গেছে তাদের, ছবিও তুলেছেন শাহরুখ খানসহ অনেকের সঙ্গে।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

শহিদুল

২০১৯-১১-২০ ২০:৫৮:২৬

এ গুলো নোংরা জগতের খেলা, সাধারন্যে না আসাই কাম্য।

md sharifuzzaman

২০১৯-১১-২০ ০৯:৩৩:১৩

মুসলিম নারীরা তথাকথিত ক্যারিয়ার গড়ার আশায় যেভাবে হিন্দুদের সাথে লিভটুগেদার শুরু করেছে ভবিষ্যতে হিন্দু-মুসলিম সম্প্রদায় হিসাবে একশ্রেণীর দ্বিজাত প্রজন্ম গড়ে উঠবে। তাদের মাতা-পিতার দিকে মানুষ থুথু নিক্ষেপ করবে।

Zaman

২০১৯-১১-১৯ ০৯:০০:০৩

ইসলামের বিধান মতে এটা জিনা করা। দুই ধরমে বিয়ে ইসলাম অনুমতি দেয় না।

Md. Harun Al-Rashid

২০১৯-১১-১৯ ১৫:৪৫:১৭

এটা সিনেমা/নাটকের বিয়ে-গতকাল ছিল বিবাহ বার্ষিকি-আজ বিবাহ বিচ্ছেদের আগের দিন। তা ছাড়া মিথিলার আসল নামটা থাকলেই হয়, কারন ভারতে তো নাম বদলের হিড়িক চলছে।

ahammad

২০১৯-১১-১৮ ১২:১৫:২৭

এসব তারকা নামক * * * খবর নালিখে দেশের প্রত্যন্ত অচ্ঞলের খবর লিখুন। এতে করে দেশবাসী ভালো খবরা খবর জানতে পারবে।

জাফর আহমেদ

২০১৯-১১-১৮ ১১:৩৪:০০

হিন্দু এবং মুসলিম এর মধ্যে আবার কেমন বিয়ে। এটাকে দুই ধর্মের কোনটাতেই বিয়ে বলা যায় না। এটা মাত্র বিয়ের নামে লিভটুগেদার। নোংরামি।

মাসুম

২০১৯-১১-১৮ ১১:২৮:২৪

তাহসান-মিথিলার ছাড়াছাড়ির হয়ে যাবার পর অনেক ক্ষোভ হয়েছিলো তাহসানের উপর । কিন্তু আজকাল মিথিলাকে নিয়ে পত্রিকায় পাতায় যা ছাপা হচ্ছে তা পড়ে বার বার মনে একটি প্রশ্নই জাগছে তাহসান এমন চরিত্রের একটি মেয়ের সাথে এতো বছর সংসার করলো কীভাবে ।

আপনার মতামত দিন

মানবতাবিরোধী অপরাধ: টিপু সুলতানের ফাঁসি

অপহরণের ৫দিন পর মিললো শিশুর লাশ

তামিলদেরও নাগরিকত্ব বিলে আনার আহ্বান

নাগরিকত্ব বিল মুসলিমদের বিরুদ্ধে বৈষম্য

‘সুচির আত্মপক্ষ সর্মথনের সুযোগ আছে বলে মনে হয় না’

কলকাতার বাজারে পদ্মার ইলিশ কিনলে পেঁয়াজ ফ্রি

শিশু শিক্ষার্থীকে ধর্ষণ, স্কুল কর্মচারি গ্রেপ্তার

আবেগি চিরকুট লিখে বিষপান, অধ্যক্ষের কক্ষে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়লো নূপুর

আনোয়ারের কাছেই ক্ষমতা হস্তান্তর করবো: মাহাথির

‘সব মিলিয়ে পছন্দ হলে সামনে জানাবো’

নিউজার্সিতে বন্দুকযুদ্ধে নিহত ৬

সেনা প্রধানসহ মিয়ানমারের ৪ কর্মকর্তার ওপর ফের নিষেধাজ্ঞা যুক্তরাষ্ট্রের

গণহত্যায় রক্তস্রোত বয়ে গেছে

আইনের শাসন সমুন্নত রাখতে সরকার কাজ করে যাচ্ছে

জয় বাংলাকে জাতীয় স্লোগান হিসেবে ব্যবহারের মত হাইকোর্টের

নৃশংসতার মুখপাত্র