এয়ার শো’তে অংশ নিতে আমিরাত যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী

কূটনৈতিক রিপোর্টার

অনলাইন ১৪ নভেম্বর ২০১৯, বৃহস্পতিবার, ৩:৪৯ | সর্বশেষ আপডেট: ৪:২৯

সংযুক্ত আরব আমিরাত সফরে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আগামী ১৬ই নভেম্বর দুবাই এয়ার শো’তে অংশ নিতে তিনি দেশটি সফরে যাচ্ছেন। আজ বৃহস্পতিবার এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আবদুল  মোমেন।

মন্ত্রী জানান, এয়ার শো’তে অংশ নেয়া ছাড়াও সরকার প্রধানের সফরে দ্বিপক্ষীয় দু’টি সমঝোতা স্মারক ও একটি প্রটোকল স্বাক্ষর হতে পারে। সমঝোতা স্মারক দু’টির একটি হবে বাংলাদেশ ইনভেস্টমেন্ট ডেভেলপমেন্ট অথরিটি ও এমিরেটস ডেভেলপমেন্ট অথরিটির মধ্যে। অপরটি বাংলাদেশ ইকোনমিক  জোন অথরিটি ও এমিরেটস ইকোনমিক জোন অথরিটির মধ্যে।

তিনি জানান, দ্বিতীয় সমঝোতা স্মারকের অধীনে সংযুক্ত আরব আমিরাত বাংলাদেশে একটি অর্থনৈতিক অঞ্চল প্রতিষ্ঠা করবে। এছাড়া আবুধাবিতে বাংলাদেশ দূতাবাস স্থাপনের জন্য জমি ক্রয় সংক্রান্ত একটি প্রটোকল স্বাক্ষরিত হতে পারে। ইউএই সরকারের বিশেষ আমন্ত্রণে প্রধানমন্ত্রী দেশটির প্রযুক্তি যুগের স্মরণকালের সেরা আয়োজন দুবাই এয়ার শা-২০১৯-এ অংশ নিতে যাচ্ছেন জানিয়ে মন্ত্রী বলেন- ১৬ই নভেম্বর প্রধানমন্ত্রী দুবাই’র পথে রওনা হয়ে ফিরবেন ১৯ শে নভেম্বর।

রেকর্ড ভাঙ্গতে যাচ্ছে এবারের দুবাই এয়ার শো: মেঘা আয়োজন দুবাই এয়ার  শো সংযুক্ত আরব আমিরাতের ফ্লাগশীপ প্রোগ্রাম। বর্ণাঢ্য ওই আয়োজন বিশ্বে অন্য ইতিহাস সৃষ্টি করেছে দু’বছর আগে, ২০১৭ সালে।
এবারে আয়োজকদের টার্গেট সেই রেকর্ড ভাঙ্গা! তারা জানিয়েছে- নিজেদের ইতিহাসের সবচেয়ে বড় বাৎসরিক ওই প্রদর্শনীর এবারের আয়োজনে থাকছে নানান চমক। যা এয়ার শো’র পূর্বের সব আয়োজন থেকে বড় ও আকর্ষণীয় তথা অন্যন্য উচ্চতায় নিয়ে যাবে প্রোগ্রামটিকে। এই আয়োজনের ম্যানেজিং ডিরেক্টর মিশেল ফল আকেলিজেন বিশ্ব সংবাদ মাধ্যমকে বলেছেন- আমরা সমগ্র বছরই ব্যস্ত থাকি। তবে দুবাই এয়ারশো হচ্ছে আমাদের ফ্ল্যাগশিপ প্রোগ্রাম। এ বছরের এয়ারশো সমপর্কে তিনি বলেন, ২০১৭ সালের প্রদর্শনীটি একটি বড় নির্দেশক ছিলো। তবে এবার এখানে দর্শনার্থীর সংখ্যা ৮৯ হাজার ছাড়িয়ে যাবে বলে আশা করছি। এছাড়া অংশ নেবেন অন্তত ১২০০ প্রদর্শক যার মধ্যে ৪০ শতাংশেরও বেশি হচ্ছে প্রতিরক্ষা সম্পর্কিত। এতে প্রদর্শন করা হবে অন্তত ১৬৫টি বিমান। আকেলিজেন বলেন, আমরা আশা করছি রাষ্ট্র ও সরকার প্রধানসহ ২৮০ জনেরও বেশি রাষ্ট্রীয় গুরুত্বপূর্ণ প্রতিনিধি প্রদর্শনীতে অংশ নেবেন। এয়ার শো’র এমন আয়োজনে দুবাই বিশ্বের তৃতীয় অবস্থানে দাবি করে তিনি বলেন, ফ্রান্স ও ইংল্যান্ডের পরেই আমরা।

এবারের আয়োজনে চমকপ্রদ আরো কিছু নতুন নতুন ফিচার যুক্ত হচ্ছে। যার মধ্যে রয়েছে মহাকাশ প্যাভিলিয়ন, বিমানবন্দর সংক্রান্ত সমস্যার সমাধান জোন ও কার্গো প্রদর্শনী। উল্লেখ্য, ১৯৮৯ সাল থেকে দুবাই এয়ারশো হয়ে আসছে। দুবাই ইন্টারন্যাশনালে ১২ বার অনুষ্ঠিত হওয়ার পর ২০১৩ সালে আল মাকতুম বিমানবন্দরে এটি স্থানান্তরিত হয়। এর ১৬তম আসর প্রদর্শিত হবে আগামী ১৭ই নভেম্বর থেকে ২১শে নভেম্বর পর্যন্ত। এই ভেন্যুতে এটি এর ৪র্থ আয়োজন।



আপনার মতামত দিন

অনলাইন -এর সর্বাধিক পঠিত