নতুন জীবনে গুলতেকিন

অনলাইন ডেস্ক

অনলাইন ১৪ নভেম্বর ২০১৯, বৃহস্পতিবার, ১০:১৬ | সর্বশেষ আপডেট: ২:৪৯

নতুন জীবনে পা দিয়েছেন গুলতেকিন। সম্প্রতি যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব আফতাব আহমেদের সঙ্গে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়েছেন তিনি। নতুন এই দম্পতির পারিবারিক সূত্র এ তথ্য নিশ্চিত করেছে।

সম্প্রতি ঢাকাতেই ছোট পরিসরে গুলতেকিন-আফতাবের বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন হয়। অতিরিক্ত সচিব আফতাব আহমদের কবি এবং লেখক হিসেবে পরিচিতি রয়েছে।

প্রয়াত কথা সাহিত্যিক হুমায়ূন আহমেদের সাবেক স্ত্রী গুলতেকিন খান। গুলতেকিনের সঙ্গে হুমায়ূন আহমেদের বিয়ে হয় ১৯৭৩ সালে। ২০০৩ সালে তাদের বিচ্ছেদ হয়। আফতাব আহমদ আগে বিয়ে করেছিলেন।
সেই স্ত্রীর সঙ্গে বিচ্ছেদ হয়েছে প্রায় ১০ বছর আগে। আফতাব আহমদ অভিনেত্রী আয়েশা আখতারের ছেলে। তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি সাহিত্যের ছাত্র ছিলেন।

আফতাব আহমদের সঙ্গে গুলতেকিনের দীর্ঘদিনের বন্ধুত্ব।



পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

Sayed Murrad

২০১৯-১১-১৪ ০৬:০৬:৩৩

অভিনন্দন আপনাকে! এইটাই সঠিক পথ!

রিপন

২০১৯-১১-১৪ ১৯:০২:০৩

উভয়ের কেহই এই লাইনে একেবারেই আনকোরা নোতুন নহে। উভয়েরই বিবাহের পূর্ব অভিজ্ঞতা রহিয়াছে। কাহারও ১০ বছরের অভিজ্ঞতা, কাহার্‌ও বা ৩০ বছরের! আশীর্বাদ আর কীইবা করিবার আছে কামেলদিগকে! তথাপিও নিয়ম রক্ষা আর কি! লও তবে আমার কিম্ভূতকিমাকার আনাড়ি আশীর্বাদখানি - ফেইলিওর ইজ দ্য খাম্বা অব সাকসেস! অতীত হোঁচটের ভিতের উপর নোতুন সাফল্যের সুখ সমৃদ্ধির ইমারত গড়িয়া লও। মনে রাখিও, প্রিয় ভ্রাতা ও ভগিনী; - অতীতের ডাকে কখনও সাড়া দিতে নাই। অতীতের নিকট, তোমাদিগকে কহিবার, নোতুন কিছুই নাই! সকল সময় সম্মুখপানে আগুয়ান হইয়া চলিতে থাকো। মুভ অন! যোগী ঋষির এই ভাঙা চালায় চায়ের নেমন্তন্ন রহিল। দীর্ঘায়ুরাস্তু!

মো আবু তালেব মিয়া

২০১৯-১১-১৩ ২৩:০৭:২৫

আপনার দাম্পত্য জীবন সুন্দরও সুখময় হোক।

Rizvi

২০১৯-১১-১৪ ১১:৪৮:১০

এ বিয়েতে আমি সেই-সব-নারীবাদীদেরকে/তথাকথিত প্রগতিবাদীদেরকে স্বরণ করিয়ে দিতে চাই "প্রত্যেক-নর-নারীর জন্য বৈবাহিক জীবনটি যে একটি সামাজিক নিরাপত্তা -গুলতেকিন পুনরায় বিয়ে করে তা (সাবেক স্ত্রী হুমায়ন আহম্মেদ) প্রমান করলেন /

হামজা

২০১৯-১১-১৩ ২১:৪০:৪৩

শাওনের পথ খুলে গেলো|

Akimul Hossain

২০১৯-১১-১৩ ২১:৩৪:১০

ছবি দেখে আর কবিতা পড়ে বোঝা যাচ্ছে, আপনারা পরস্পরের ভালোবাসার মধ্যে আছেন। খুব ভালো লাগলো। সুখি আর দীঘজীবি হোন। অনেক অনেক শুভেচ্ছা রইলো আপনাদের জন্য।

আপনার মতামত দিন

অনলাইন -এর সর্বাধিক পঠিত