৪ নম্বর সতর্ক সংকেত

শক্তিশালী হচ্ছে ঘূর্ণিঝড় বুলবুল

এক্সক্লুসিভ

স্টাফ রিপোর্টার, চট্টগ্রাম থেকে | ৯ নভেম্বর ২০১৯, শনিবার | সর্বশেষ আপডেট: ৯:৫৭
বাংলাদেশের উপকুলের দিকে ধেয়ে আসছে ঘূর্ণিঝড় বুলবুল। ক্রমাগত এটির শক্তি বাড়ছে। এর প্রভাবে শুক্রবার সকাল থেকে চট্টগ্রামের উপকুলে সাগর উত্তাল হয়ে পড়েছে। এ কারণে সমুদ্রবন্দরে ৪ নম্বর স্থানীয় সতর্ক সংকেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছে। পতেঙ্গা আবহাওয়া অফিসের বিশেষ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, পূর্ব-মধ্য বঙ্গোপসাগর ও তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থানরত ঘূর্ণিঝড় বুলবুল আরও উত্তর-উত্তর পরিশ্চমদিকে অগ্রসর হয়ে একই এলাকায় অবস্থান করছে। এটি শুক্রবার সকাল ৬ টায় চট্টগ্রাম সমুদ্রবন্দর থেকে ৭৬০ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিমে, কক্সবাজার সমুদ্রবন্দর থেকে ৭১০ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিমে, মংলা সমুদ্রবন্দর থেকে ৬৬৫ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিমে এবং পায়রা সমুদ্রবন্দর থেকে ৬৫০ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিমে অবস্থান করছিল।

ঘূর্ণিঝড়টি বর্তমানে ভারতের পশ্চিমবঙ্গ এবং বাংলাদেশের খুলনা ও বরিশাল উপকূলের দিকে মুখ করে আছে। ঘূর্ণিঝড়টি আরও শক্তিশালী হয়ে উত্তর ও উত্তর-পশ্চিম দিকে এগিয়ে আসার সম্ভাবনা প্রবল।
ঘূর্ণিঝড় কেন্দ্রের ৬৪ কিলোমিটারের মধ্যে বাতাসের সর্বোচ্চ গতিবেগ ঘণ্টায় ৯০ কিলোমিটার, যা ক্রমান্বয়ে ১০০ কিলোমিটার পর্যন্ত বাড়ছে। শনিবার (৯ই নভেম্বর) রাতে বা রোববার (১০ই নভেম্বর) সকালের দিকে এটি উপকূলে আঘাত হানতে পারে।
পতেঙ্গা আবহাওয়া অফিসের আবহাওয়াবিদ ফরিদ আহমেদ জানান, পশ্চিমবঙ্গ আবহাওয়া অফিসের সূত্রমতে গতিপথ পরিবর্তন করে স্থলভাগে আছড়ে পড়বে ঘূর্ণিঝড় বুলবুল। রোববার সকালের দিকে পশ্চিমবঙ্গের সাগরদ্বীপ থেকে বাংলাদেশের খেপুপাড়ার মাঝে স্থলভাগের প্রবেশ করবে ঘূর্ণিঝড়টি। এর আগে শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড় থেকে অতি শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হবে বুলবুল।

বুলবুলের অগ্রবর্তী অংশের প্রভাবে সমুদ্রবন্দর, উত্তর বঙ্গোপসাগর ও বাংলাদেশের উপকূলীয় এলাকায় দমকা থেকে ঝড়ো হাওয়া বয়ে যেতে পারে। ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের কারণে খুলনা, বরিশাল উপকূলসহ ঢাকা ও এর আশপাশের অঞ্চলে ছেড়ে ছেড়ে কয়েকদিন বৃষ্টি হতে পারে। এছাড়া উত্তর ও দক্ষিণ ২৪ পরগনা, কলকাতা, হাওড়া, হুগলি, পূর্ব মেদিনীপুর ও নদিয়া জেলাতেও শনি ও রোববার ভারী বৃষ্টি হবে বলে জানিয়েছে পশ্চিমবঙ্গ আবহাওয়া অফিস।
ফরিদ আহমেদ আরো বলেন, ঘূর্ণিঝড় কেন্দ্রের কাছে সাগর প্রচন্ড উত্তাল রয়েছে। ফলে দেশের সমুদ্র বন্দরগুলোকে ৪ নম্বর সতর্কতা সংকেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছে। উত্তর বঙ্গোপসাগরে অবস্থানরত মাছ ধরার নৌকা ও ট্রলারগুলোকে যত দ্রুত সম্ভব নিরাপদ স্থানে যেতে এবং পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত নিরাপদ আশ্রয়ে থাকতে বলা হয়েছে।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

শাজিদ

২০১৯-১১-০৮ ২১:১৪:৫১

ওয়াইজাল বিহারু ফুইজ্জেরাত (যখন সাগর মহাসাগরকে উত্তাল করে তোলা হবে) ঘুর্ণিঝড় কেয়ামতের একটি আলামত।

আপনার মতামত দিন

লাঞ্চের পর আর ব্যাটিংয়ে নামেননি লিটন

উত্ত্যক্তের প্রতিবাদ করায় বখাটের লাথিতে প্রাণ গেলো বাবার

বিশ্বজুড়ে শিশুদের মধ্যে শারীরিক নিষ্ক্রিয়তা, বাংলাদেশে সবচেয়ে কম

কুষ্টিয়ায় বয়লার বিস্ফোরণে ৪ শ্রমিক দগ্ধ

মির্জাগঞ্জে ডাক্তার শূণ্য উপস্বাস্থ্য কেন্দ্র

সাতক্ষীরায় সাড়ে ৪ কেজি স্বর্ণ জব্দ

পড়াশোনা শেষে বিদেশিদের চাকরির সুযোগ কঠিন হচ্ছে যুক্তরাষ্ট্রে

৭৩/৬ নিয়ে চা বিরতিতে গেলো বাংলাদেশ

ইডেন টেস্ট দেখতে কলকাতায় প্রধানমন্ত্রী

খালেদার মুক্তির দাবিতে রাজধানীতে বিএনপির বিক্ষোভ

বাংলাদেশ ও টেস্ট ক্রিকেট: উনিশ বছর পরও পুরোনো হাহুতাশ

কমান্ডো ঘেরা বিশেষ বক্সে বসে খেলা দেখবেন শেখ হাসিনা

৩ শতাধিক ভারতীয় অনুপ্রবেশকারীকে আটক করেছে বিজিবি

হাসিনা-মমতা একান্ত বৈঠক নিয়ে আগ্রহ তুঙ্গে

ডিআর কঙ্গোতে হাম মহামারী, প্রায় ৫০০০ নিহত

ইডেন টেস্ট নিয়ে যা বললেন দুই ভারতীয় সাংবাদিক (ভিডিও)