হ্যালো ডক্টর এশিয়া’ স্বাস্থ্যসেবা বিভাগে পেল ন্যাশনাল আইসিটি অ্যাওয়ার্ড

অর্থনৈতিক রিপোর্টার

অনলাইন ১৮ অক্টোবর ২০১৯, শুক্রবার, ৭:৪৬

স্বাস্থ্যসেবা বিভাগে ন্যাশনাল আইসিটি অ্যাওয়ার্ড ২০১৯ পেয়েছে ‘হ্যালো ডক্টর এশিয়া’। রাজধানীর রেডিসন ব্লু ওয়াটার গার্ডেনের গ্র্যান্ড বলরুমে ১০ই অক্টোবর আয়োজিত পুরষ্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন এবং তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক। ২০১৭ সাল থেকে প্রতি বছর বেসিস জাতীয় পর্যায়ের এই অ্যাওয়ার্ড প্রদান করে আসছে।
 
‘সবার জন্য অনলাইন স্বাস্থ্যসেবা’ এ প্রত্যয় নিয়ে চলতি বছর এপ্রিল মাসে যাত্রা শুরু করেছে মোবাইল অ্যাপ্লিকেশন ‘হ্যালো ডক্টর এশিয়া’। স্বাস্থ্যখাতে প্রচলিত প্রায় সব অনলাইন সেবা মিলছে এ মোবাইল অ্যাপ্লিকেশনে। রোগীরা খুব সহজেই চিকিৎসকদের সঙ্গে ভিডিও কনসালটেসন, চ্যাট কনসালটেসন এবং অনলাইনে প্রেসক্রিপশন ও স্বাস্থ্য তথ্যসমূহ আদান-প্রদান করতে পারছেন। বর্তমানে প্রায় ১২০ জন চিকিৎসক এই মোবাইল অ্যাপ্লিকেশনে অনলাইন স্বাস্থ্যসেবা প্রদানে যুক্ত আছেন এবং প্রতিদিনই নতুন নতুন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক সেবা প্রদানে যুক্ত হচ্ছেন। আগামী ডিসেম্বর থেকে বিদেশের বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকরা সেবা প্রদানে যুক্ত হবেন।
 
দেশের বাইরে চিকিৎসা নিতে যারা যাবেন তাদের জন্য ‘হ্যালো ডক্টর এশিয়া’ সম্প্রতি চালু করেছে ‘ইন্টারন্যাশনাল হেলথকেয়ার স্মার্ট কার্ড’।
ফলে মোবাইল অ্যাপ্লিকেশনের ব্যবহারকারিরা এশিয়ার ১০ হাজারের বেশি বিশেষজ্ঞ ডাক্তারের অ্যাপয়েন্টমেন্ট, এশিয়ার সেরা ১০০ এর বেশি হাসপাতাল থেকে ফ্রি ভিসা লেটার, নূন্যতম ৩টি বিশেষায়িত হাসপাতাল থেকে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের মতামত, বিশেষায়িত হাসপাতালের আনুমানিক স্বাস্থ্যসেবা খরচ সম্পর্কে তথ্য, এয়ারপোর্ট/রেল স্টেশন থেকে হোটেলে যাওয়ার জন্য ফ্রি ট্রান্সপোর্ট সার্ভিস ও সাশ্রয়ী মূল্যে হাসপাতালের কাছাকাছি থাকার ব্যবস্থা/হোটেল বুকিংয়ের সুযোগ পাবেন।
 
হ্যালো ডক্টর ডট এশিয়ার প্রতিষ্ঠাতা ও জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞ ফোরকান হোসেন বলেন, স্বাস্থ্যসেবা বিভাগে ন্যাশনাল আইসিটি অ্যাওয়ার্ড ২০১৯ পাওয়ায় আমরা গর্বিত। আমাদের চলার পথে এই অ্যাওয়ার্ড অনুপ্রেরণা হয়ে থাকবে। এ ছাড়াও ‘হ্যালো ডক্টর এশিয়া’ স্বাস্থ্যখাতে কিছু সুনির্দিষ্ট টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে সহায়ক ভূমিকা পালন করবে। আগামীতে ক্যান্সার কেয়ার, কিডনি কেয়ার, যুব সাস্থ্য ও মানসিক স্বাস্থ্যসেবা প্রদানে ‘হ্যালো ডক্টর ডট এশিয়া’ প্রযুক্তি সহায়ক ভূমিকা রাখবে।

আপনার মতামত দিন

অনলাইন অন্যান্য খবর

সুজনের তথ্য বিশ্লেষণ

অধিকাংশ কাউন্সিলর প্রার্থীই স্বল্প শিক্ষিত

২৫ জানুয়ারি ২০২০

২০ টাকার জন্য...

২৫ জানুয়ারি ২০২০

ঝিনাইদহে শুরু হয়েছে ৩দিন ব্যাপী জাতীয় নজরুল সম্মেলন

২৫ জানুয়ারি ২০২০

ঝিনাইদহে শুরু হয়েছে ৩ দিন ব্যাপী জাতীয় নজরুল সম্মেলন। এ উপলক্ষ্যে আজ সকালে শহরের পুরাতন ...





অনলাইন সর্বাধিক পঠিত



আইনজীবী ইন্দিরার সমালোচনায় কঙ্গনা

ওই মহিলাকে চার দিন ধর্ষকদের সঙ্গে জেলে রাখা উচিত