কাশ্মীরে মোবাইল সেবা ফিরছে, বন্ধ থাকবে ইন্টারনেট

মানবজমিন ডেস্ক

বিশ্বজমিন ১৪ অক্টোবর ২০১৯, সোমবার

দুই মাস ধরে মোবাইল সেবা বন্ধ রয়েছে ভারতশাসিত কাশ্মীরে। আগস্টের শুরুর দিকে সংবিধান সংশোধনের মাধ্যমে রাজ্যটির স্বায়ত্তশাসন কেড়ে নেয়ার পরপরই অঞ্চলটিতে কঠোর অবরোধ আরোপিত হয়। তার অংশ হিসেবে বিচ্ছিন্ন করে দেয়া হয়েছিল মোবাইল সেবাও। তবে সরকারের এক মুখপাত্র শনিবার জানিয়েছেন, সোমবার থেকে অঞ্চলটিতে মোবাইল সেবা চালু হতে যাচ্ছে। এ খবর দিয়েছে দ্য নিউ ইয়র্ক টাইমস। কাশ্মীরের প্রিন্সিপাল সেক্রেটারি রোহিত কানসাল শনিবার শ্রীনগরে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে বলেন, সোমবার থেকে মোবাইল সেবা ফিরতে শুরু করবে। এই পদক্ষেপ পরিস্থিতি স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরে যাওয়ার একটি ব্যারোমিটার।
কেন্দ্র সরকার কাশ্মীরের স্বায়ত্তশাসন কেড়ে নেয়ার পর থেকে অঞ্চলটিতে চরম অস্থিরতা বিরাজ করেছে। স্বায়ত্তশাসন কেড়ে নেয়ার ঘোষণার আগ দিয়ে অঞ্চলটিতে বিপুল পরিমান সেনা মোতায়েন করা হয়।
বন্ধ করে দেয়া হয় পর্যটন সেবা। বিচ্ছিন্ন করে দেয়া হয় ল্যান্ডলাইন ও মুঠোফোন সংযোগ। গ্রেপ্তার ও আটক করা হয় অসংখ্য স্থানীয় নেতা, সরকারি কর্মকর্তা ও প্রভাবশালী ব্যক্তিত্বদের। অধিকারকর্মীরা ভারতের এই পদক্ষেপকে অবৈধ দাবি করেছেন। পদক্ষেপটির ফলে থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে কাশ্মীরে। আন্তর্জাতিক পর্যায়ে তীব্র সমালোচনার সম্মুখীন হয়েছে ভারত। পাকিস্তানের সঙ্গে নতুন করে উত্তেজনারও জন্ম দিয়েছে কাশ্মীরের স্বায়ত্তশাসন অবরোধ। সম্প্রতি কাশ্মীরে অবরোধ হালকা করার আভাস দিয়েছে ভারত। গত সপ্তাহে জানিয়েছে, এখন থেকে ফের কাশ্মীরে ভ্রমণ করতে পারবেন পর্যটকরা। এরপর এলো মোবাইল সংযোগ ফেরার ঘোষণা।
তবে কানসাল জানিয়েছেন, পুরোপুরিভাবে বিধি-নিষেধ তুলে নেবে না কেন্দ্রীয় সরকার। মোবাইলে কথা বলার সুবিধা ফিরলেও, ফিরছে না ইন্টারনেট সেবা। তিনি বলেন, বাইরে থেকে মদতপ্রাপ্ত সন্ত্রাসবাদ যাতে প্রাণহানি না হয়, তা নিশ্চিত করতে কিছু বিধি-নিষেধ অব্যাহত রাখা হবে। এদিক, শনিবার সংবাদ সম্মেলনে কানসাল মোবাইল সেবা চালুর ঘোষণা দিলেও, রোববার শ্রীনগরে এক বোমা হামলার পর সে ঘোষণা নিয়ে সংশয় দেখা দিয়েছে। স্থানীয় পুলিশ জানিয়েছে, রোববার শ্রীনগরের একটি বাজার এলাকায় ‘গ্রেনেড হামলা’ চালিয়েছে জঙ্গিরা। হামলার আহত হয়েছেন বেশ কয়েকজন তবে কোনো প্রাণহানি ঘটেনি।


বিশ্বজমিন অন্যান্য খবর





আপনার মতামত দিন

বিশ্বজমিন সর্বাধিক পঠিত