বিজেপির ঘোষণা

পশ্চিমবঙ্গে ২ কোটি নাম বাদ দিতে এনআরসি হবেই

ভারত

কলকাতা প্রতিনিধি | ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯, শুক্রবার
আসামে জাতীয় নাগরিকপঞ্জী (এনআরসি) নিয়ে বিতর্কের মধ্যেই পশ্চিমবঙ্গে এনআরসি চালুর জন্য বিজেপি উঠেপড়ে লেগেছে। বিজেপির পশ্চিমবঙ্গ কমিটির সভাপতি দিলীপ ঘোষ বুধবার দিল্লিতে সাংবাদিকদের বলেছেন, আসামের ধাঁচে পশ্চিমবঙ্গে এনআরসি হবে। তাতে প্রায় দু’কোটি মানুষ বাদ যাবে। বিদেশি নাগরিকরা এসে রাজ্য, তথা দেশের সম্পদ নষ্ট করছে। তা রুখতেই এনআরসি প্রয়োজন বলে তিনি দাবি করেছেন। ঠিক একদিন আগেই কলকাতায় এসে কেন্দ্রীয়মন্ত্রী স্মৃতি ইরানিও পশ্চিমবঙ্গে এনআরসি হবেই বলে দাবি করেছেন। তিনি বলেছেন, বাংলায় নাগরিকপঞ্জি করার বিষয়ে কেন্দ্রীয় সরকার দৃঢ় প্রতিজ্ঞ। সেই সঙ্গে তিনি জানিয়েছেন, অনুপ্রবেশকারীদের আটকাতে পশ্চিমবঙ্গসহ গোটা দেশেই নাগরিকপঞ্জি হবে।
তবে পশ্চিমবঙ্গে এনআরসি করতে দেবেন না বলে তৃণমূল কংগ্রেস নেত্রী ও রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ইতিমধ্যেই মাঠে নেমে পড়েছেন। কয়েকদিনে ব্লকে ব্লকে ধরণা ও বিক্ষোভ সমাবেশের পর বৃহস্পতিবার কলকাতায় মিছিলও হচ্ছে। সেই মিছিলে অংশ নেওয়ার কথা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়সহ রাজ্যের নেতা ও মন্ত্রীদের। রাজ্য বিধানসভাতেও এনআরসি ঠেকাতে একটি প্রস্তাব পাস হয়েছে। তবে বিজেপি নেতারা আগামী বিধানসভা নির্বাচনের লক্ষ্যে এনআরসিকেই হাতিয়ার করতে চলেছেন বলে রাজনৈতিক মহলের ধারণা। বুধবার দিল্লিতে বিজেপি সভাপতি তথা কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ’র সঙ্গে বৈঠক করেছেন রাজ্যের বিজেপির কয়েকজন শীর্ষ নেতা। এই বৈঠকের আগে শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায় রিসার্চ ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে ‘সেইফ বেঙ্গল’ নামে একটি আলোচনা সভায় বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ বলেছেন, পশ্চিমবঙ্গে নাগরিকপঞ্জি চালু করতেই হবে। তবে তিনি হিন্দু শরণার্থীদের নাগরিকত্ব দেবার অঙ্গীকারও করেছেন। এর আগে কলকাতায় দিলীপ ঘোষ সাফ বলেছেন, পশ্চিমবঙ্গ থেকে মুসলিম অনুপ্রবেশকারীদের বিতাড়নই বিজেপির লক্ষ্য। তবে মমতার সরকার যেহেতু এ ব্যাপারে উদ্যোগী হচ্ছে না, তাই ২০২১ সালে বিজেপি রাজ্যে ক্ষমতায় এসে সেই কাজটিই করবে। বৃহস্পতিবার এনআরসি ইস্যুতে মমতার পথে নামা নিয়ে কটাক্ষ করে দিলীপ ঘোষ বলেছেন, মুখ্যমন্ত্রীর পুরনো অভ্যাস কিছু হলেই রাস্তায় নেমে পড়া। বাড়ি থাকতে পারেন না। সেই অভ্যাস বজায় রাখতেই তিনি রাস্তায় নামছেন। ২০২১ সালের পরে তো রাস্তাতেই নামতে হবে। তবে যে-ই রাস্তায় নামুক, পশ্চিমবঙ্গে এনআরসি হবেই বলে তিনি ঘোষণা দেন।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

Dr.Mohammed Habibur

২০১৯-০৯-১৩ ১৮:০২:০৭

Like neighboring India, The Government of the People's Republic of Bangladesh should start NRC here like Assam to identify people who arrived after 1947 partition as muslim refugees from West Bengal to East Pakistan. Since, there is no more East Pakistan, thus, It is high time that they should be identified and must go back to their motherland. It may be mentioned here that they contributed a lot to increase our local population especially in the border districts with West Bengal and responsible for many political problems in this country . They had never integrated with our locals and behave as higher cast.

আপনার মতামত দিন

৮৮ পাউন্ডের লুলুলেমন, নির্মাতারা নির্যাতিত

সম্রাটের মুখে কুশীলবদের নাম

বাংলাদেশের ফুটবলের উন্নয়নে সহযোগিতা অব্যাহত থাকবে ফিফা প্রেসিডেন্ট

ফরিদপুরে মানবজমিন উধাও

সীমান্তে গোলাগুলি বিএসএফ সদস্যের নিহতের খবর ভারতীয় মিডিয়ায়

৩৬০০ মেগাওয়াটের বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণ করবে সৌদি কোম্পানি

গ্রামীণফোন-রবিতে প্রশাসক নিয়োগে মন্ত্রণালয়ের অনুমোদন

বালিশকাণ্ডের তদন্তে দুদক

ব্রেক্সিট নিয়ে বৃটেন ইইউ সমঝোতা

মুসা বিন শমসেরের বিরুদ্ধে দুদকের মামলা

দক্ষিণ আফ্রিকায় গিয়েও নিরাপত্তাহীনতায়

ভুলে আসামি, ১৮ বছর পর খালাস পেলেন নাটোরের বাবলু শেখ

গ্রামীণফোনের কাছ থেকে ১২৫৮০ কোটি টাকা আদায়ের ওপর হাইকোর্টের নিষেধাজ্ঞা

‘ফিরোজের কাছে ফিরে আসবো’

শেখ হাসিনা প্রধানমন্ত্রী বলেই আবরার হত্যার পর দ্রুত পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে

পদযাত্রায় বাধা, আমরণ অনশনে নন-এমপিও শিক্ষকরা