কেন ম্যাচ খেলেননি রোনালদো, তদন্তে সিউল পুলিশ

খেলা

স্পোর্টস ডেস্ক | ৯ আগস্ট ২০১৯, শুক্রবার
গত ২৬শে জুলাই সিউলে দক্ষিণ কোরিয়ার কে-লীগের অলস্টারস একাদশের বিপক্ষে প্রীতি ম্যাচ খেলে সিরি আ চ্যাম্পিয়ন জুভেন্টাস। ম্যাচটি উপভোগ করেন ৬৬ হাজার দর্শক। প্রতিটি টিকিটের জন্য ৪ লাখ ওন (২৯৫ ইউরো) খরচ করতে হয়েছে তাদের। উত্তেজনাকর ম্যাচটি ৩-৩ গোলে ড্র হয়। কিন্তু যে আশা নিয়ে মাঠে গিয়েছিলেন দর্শকরা, সেটি পূরণ হয়নি। ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর খেলার দেখতে পারেননি তারা। পুরো ম্যাচে বেঞ্চেই বসা ছিলেন পাঁচবারের ব্যালন ডি’অর জয়ী তারকা। রোনালদোকে কেন খেলানো হলো না, এ নিয়ে এবার আয়োজক এজেন্সির বিরুদ্ধে তদন্তে নেমেছে সিউল পুলিশ।

জুভেন্টাস বনাম কে-লীগ অলস্টারসের মধ্যকার ম্যাচের আয়োজক দ্য ফাস্টা নামের একটি স্পোর্টস এজেন্সি। যারা দর্শকদের আশ্বাস দিয়েছিল, অন্তত ৪৫ মিনিট খেলবেন রোনালদো। কিন্তু পেশীর অস্বস্তির কারণে রোনালদোকে আর মাঠে নামানো হয়নি। এর ব্যাখ্যা জানতে চেয়ে গত সপ্তাহে কে-লীগ কর্তৃপক্ষ জুভেন্টাসের কাছে চিঠি পাঠিয়েছিল। প্রতারণার অভিযোগ এনে জুভেন্টাসের পক্ষ থেকে ক্ষমাও প্রার্থনা করে কে-লীগ কর্তৃপক্ষ। তবে জুভেন্টাস তাদের অভিযোগ প্রত্যাখ্যাত করে। ক্লাবের চেয়ারম্যান আন্দ্রে অ্যাগনেলি বলেন, ‘ডাক্তারের পরামর্শেই রোনালদোকে বিরত রাখা হয়েছিল।’

এরপর গত বৃহস্পতিবার সিউল পুলিশ ম্যাচের আয়োজন দ্য ফাস্টা কোম্পানির অফিসে অভিযান চালায়। বার্তা সংস্থা এএফপিকে সিউল পুলিশ অভিযানের বিষয়টি নিশ্চিত করেছে। এক পুলিশ কর্মকর্তা বলেন, ‘আমরা ওই কোম্পানির অফিসে অভিযান চালিয়েছি। আমরা নিশ্চিত হতে চেয়েছি, জুভেন্টাসের সঙ্গে রোনালদোর খেলা নিয়ে দ্য ফাস্টা কোম্পানির সত্যিই কোনো চুক্তি হয়েছিল, নাকি দর্শকদের ঠকানোর জন্য মিথ্যা আশ্বাস দিয়েছিল তারা।’ তদন্ত শেষ না হওয়া পর্যন্ত দ্য ফাস্টা কোম্পানির চেয়ারম্যান রবিন ঝ্যাং দেশের বাইরে যাওয়া নিষিদ্ধ করেছে সিউল পুলিশ।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

ভারতের সাবেক অর্থমন্ত্রীকে গ্রেপ্তার করেছে সিবিআই

ভারতের সাবেক অর্থমন্ত্রী চিদাম্বরম গ্রেপ্তার

বিএনপি-জামায়াতের পৃষ্ঠপোষকতায় ২১শে আগস্ট হামলা

পরিচ্ছন্নতা অভিযানের পরের দিন আগের চিত্র

কাশ্মীর ইস্যু ভারতের অভ্যন্তরীণ

কাশ্মীরের যে এলাকা এখনো মুক্ত

সর্ষের মধ্যে ভূত থাকতে নেই: হাইকোর্ট

ফেসবুক গ্রুপ ‘গার্লস প্রায়োরিটি’র অ্যাডমিন কারাগারে

বিতর্ক দমাতে ফুটেজ চান মেয়র আরিফ

ঢাকা-দিল্লি সম্পর্ক ইতিবাচক পথেই রয়েছে: জয়শঙ্কর

কে হচ্ছেন মন্ত্রিপরিষদ সচিব ও মুখ্য সচিব

তারেকের সর্বোচ্চ শাস্তির জন্য আপিল করা হবে

ডেঙ্গু পরিস্থিতি: রোগী কমে-বাড়ে ২৪ ঘণ্টায় ভর্তি ১৬২৬

এডিস মশার লার্ভা পাওয়ায় দুই সিটিতে ৩৯০০০০ টাকা জরিমানা

মিয়ানমারের উত্তরাঞ্চলে নতুন করে অস্থিরতা নিহত ১৯

৫ বছরে আমানত ৫ হাজার কোটি টাকা