দিনভর বৃষ্টি, ভোগান্তিতে নগরবাসী

এক্সক্লুসিভ

স্টাফ রিপোর্টার | ৯ আগস্ট ২০১৯, শুক্রবার | সর্বশেষ আপডেট: ১২:০৩
দিনভর বৃষ্টিতে জলাবদ্ধতা। রাজধানীর মিরপুর এলাকার গতকালের দৃশ্য -নিজস্ব ছবি
ভারতের উপকূলে সৃষ্ট নিম্নচাপটি মৌসুমি স্থল নিম্নচাপে পরিণত হওয়ায় বাংলাদেশের বিভিন্ন অঞ্চলে ঝড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি হচ্ছে। নিম্নচাপটি স্থলভাগে উঠে আসায় ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত না হয়ে দুর্বল হয়ে লঘুচাপে পরিণত হবে। লঘুচাপ থাকাকালীন সময় পর্যন্ত বাংলাদেশ ও ভারতের উপকূলে এই বৃষ্টি অব্যাহত থাকবে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর। দেশের বিভিন্ন স্থানের মতো ঢাকায়ও গতকাল দিনভর বৃষ্টিতে দুর্ভোগ পোহাতে হয় নগরবাসীকে। ঢাকার বিভিন্ন এলাকায়  জলজটের কারণে দুর্ভোগ পোহাতে হয় নগরবাসীকে। এক স্থান থেকে অন্য স্থানে যেতে লেগে যায় ঘণ্টার পর ঘণ্টা। সরজমিন রাজধানীর মিরপুর, কাজীপাড়া, শেওড়াপাড়া, কালশি, মতিঝিল, শাহজাহানপুর, পীরজঙ্গি মাজার এলাকা, মালিবাগ, শান্তিনগর, বাসাবো, খিলগাঁও, যাত্রাবাড়ী, ধানমন্ডি ২৭, শনির আখড়া, ডেমরা, টিকাটুলিসহ আরো অনেক এলাকায় জলাবদ্ধতার পরিস্থিতি দেখা যায়। সপ্তাহের কর্মদিবস থাকায় রাস্তায় যানবাহন চলাচল ছিল ব্যাপক।
জলাবদ্ধতার কারণে সড়কে স্বাভাবিকভাবে যানবাহন চলাচল করতে পারেনি। গুরুত্বপূর্ণ ও ব্যস্ততম সড়কে জলাবদ্ধতা থাকার কারণে যানজট লেগে থাকতে দেখা গেছে। জরুরি কাজে বের হওয়া অনেকেই নির্ধারিত সময়ে গন্তব্য পৌঁছাতে পারেননি। এছাড়া নিম্নাঞ্চলের বাসিন্দাদের ভোগান্তি ছিল অসহনীয়। ঘরে পানি ঢুকে পড়ায় দৈনন্দিন কাজকর্ম সারতে বেগ পেতে হয়েছে অনেককেই। সরজমিন রাজধানীর শেওড়াপাড়া, কাজীপাড়া, মিরপুর-১০ নম্বর, কালশী এলাকায় গিয়ে দেখা যায় এসব এলাকার বাসিন্দাদের ভোগান্তি ছিল চরমে। এসব এলাকায় স্বাভাবিক গতিতে পানি না সরার কারণে রাস্তায় হাঁটু সমান পানি উঠে যায়। ফলে অনেকের জরুরি কাজ থাকলেও ঘর থেকে বের হতে পারেননি। কাজীপাড়া এলাকায় সড়কের পানি অনেক ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ও বাসাবাড়িতে উঠে যায়। মেট্রোরেলের কাজ চলায় এ সড়কে অনেক স্থানে বড় গর্তের কারণে ছোট যানবাহনকে উল্টে যায়। জলাবদ্ধতায় আটকে ভোগান্তির শিকার হতে হয়েছে রাজধানীর মতিঝিল, রাজারবাগ, কমলাপুর এলাকার বাসিন্দাদেরও। এসব এলাকায় বৃষ্টির সঙ্গে সঙ্গে রাস্তায় পানি উঠে যায় রাস্তায়। মতিঝিল থেকে মালিবাগগামী শরিফ নামের এক ব্যাংক কর্মকর্তা জানান, অফিসে যাওয়ার উদ্দেশ্যেই বাসা থেকে বেরিয়েছি। হঠাৎ বৃষ্টিতে পানি জমে গেছে। প্রায়ই এ সমস্যায় পড়তে হয়। একটু বৃষ্টি হলেই পানি উঠে যায় রাস্তায়। অনেকক্ষণ বাসের জন্য অপেক্ষা করেও কোনো বাস মেলেনি। কি করবো ভাবছি। মতিঝিল সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের কাছে গিয়ে দেখা যায় এক ট্রাফিক পুলিশ এই হাঁটু সমান পানির মধ্যেই রাস্তায় দায়িত্ব পালন করছেন। এছাড়া রাজধানীর মালিবাগ, শান্তিনগর, কাকরাইল, মৌচাক এলাকাতেও একই অবস্থা দেখা গেছে। বিশেষ করে মৌচাক মার্কেট থেকে মালিবাগ মোড় হোসাফ শপিং সেন্টার পর্যন্ত রাস্তাটির অবস্থা সারাবছর একই থাকে। গতকালও সকালে বৃষ্টির পর রাস্তায় পানি জমে যায়। আর সেটা ফুটপাথের উপরও উঠে যায়। এতে সাধারণ পথচারীদের অনেকে খুব কষ্টে জায়গাটি পার হয়েছেন। জলজটের শিকার হতে হয়েছে ধানমন্ডি এলাকার মানুষদেরও। সকালের বৃষ্টিতে তলিয়ে গেছে এই এলাকার বেশকিছু সড়ক। স্কুল-কলেজগামী অনেক শিক্ষার্থীকে পড়তে হয়েছে চরম ভোগান্তিতে। কেউ কেউ কলেজে যেতে চেয়ে আর যেতে পারেননি। বৃষ্টির পানিতে দুর্ভোগে পড়তে হয়েছে রাজধানীর অন্যতম ব্যস্ততম এলাকা ফার্মগেট, কাওরান বাজার, গ্রীন রোডের মানুষদের। এসব এলাকায় আসা অনেক মানুষ সকাল থেকে বৃষ্টির পানিতে আটকে পড়েন। কেউ কেউ অন্য স্থান থেকে এসে বিপাকে পড়ে যান। সময়মতো বাসায় ফিরতেও পারেননি।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

খালেদার মুক্তির বিষয়ে আন্তর্জাতিকভাবে পদক্ষেপ নেয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে: ফখরুল

ডেঙ্গুতে মৃত্যু থামছে না

উফ! কী মর্মান্তিক

‘হাত-পা বেঁধে নাইমকে শ্বাসরোধ করে খুন করি’

চামড়া বিক্রি করছেন না আড়তদাররা

ঢাকায় সড়কে বাড়ছে মৃত্যু

কাশ্মীর সংকট গুরুতর, উদ্বেগজনক

জিএম কাদেরকে সংসদে বিরোধী দলীয় নেতা হওয়ার প্রস্তাব

আয়কর বিতর্কে কলকাতার দুর্গাপূজো

ডেঙ্গু আক্রান্ত মেয়ে হাসপাতালে এদিকে ঘর পুড়ে ছাই

ওদের সব পুড়ে শেষ

‘কাজ চাই রিলিফ চাই না’

লণ্ডভণ্ড শিডিউল ঠিক হয়নি এখনো

৭ বছর পর পরিবারকে ফিরে পেয়ে আবেগাপ্লুত খাদিজা

ডেঙ্গু কেড়ে নিয়েছে কিশোরগঞ্জের ছয় প্রাণ

প্রশ্নকারী মডারেটর পরীক্ষক খুঁজছে পিএসসি