ইজিবাইক থেকে নামিয়ে ধর্ষণের পর ছাত্রীকে নৃশংসভাবে হত্যা

অনলাইন

স্টাফ রিপোর্টার | ২০ জুলাই ২০১৯, শনিবার, ৬:২৮
মাদারীপুরে দশম শ্রেণির মাদ্রাসা ছাত্রী দীপ্তি আক্তার হত্যা মামলার প্রধান আসামি সাজ্জাদ হোসেনকে (৪০) গ্রেপ্তার ও হত্যার রহস্য উদঘাটন করেছে র‌্যাব। র‌্যাবের দাবি, দীপ্তিকে একটি ইজিবাইকের চালক ইজিবাইক থেকে নামিয়ে বাড়িতে নিয়ে ধর্ষণের পর শ্বাসরোধে হত্যা করে। পরে লাশটি গুম করতে একটি পরিত্যক্ত পুকুরে ইট বেঁধে ডুবিয়ে রাখা হয়। আজ সকালে র‌্যাব-৮ মাদারীপুর ক্যাম্পে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা জানানো হয়।

সংবাদ সম্মেলনে আতিকা ইসলাম বলেন, ৯ জুলাই মাদারীপুর শহরের মাস্টার কলোনি এলাকায় দীপ্তি তার বোনের বাসায় বেড়াতে আসে। ১১ জুলাই দুপুরে সে তার প্রবাসী চাচার বাসায় বেড়াতে যাবে বলে বের হয়। ওই দিন বিকেলে মাদারীপুর শহরের ইটেরপুলে বোনের বাসা থেকে ইজিবাইকে করে সে চরমুগরিয়ার দিকে যাচ্ছিল। পূর্ব খাগদী এলাকায় ইজিবাইক চালক সাজ্জাদ দীপ্তিকে একা পেয়ে তার মুখ চেপে নিজের বাড়িতে নিয়ে ধর্ষণের পর শ্বাসরোধে হত্যা করেন। পরে দীপ্তির গলায় ইট বেঁধে, ছুড়ি দিয়ে পেট কেটে লাশ বাড়ির পাশে একটি পরিত্যক্ত পুকুরে ডুবিয়ে রাখেন তিনি।

তিনি আরও বলেন, আর দীপ্তির ব্যবহৃত পোশাক একটি সিমেন্টের বস্তার মধ্যে ভরে সাজ্জাদের বাড়ির কাছের একটি পুকুরে ফেলেন। ১৩ জুলাই মাদারীপুর সদর উপজেলার পূর্ব খাগদী এলাকার একটি পরিত্যক্ত পুকুর থেকে ১৫ বছর বয়সী অজ্ঞাতনামা এক কিশোরীর মুখ পোড়ানো লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। পরের দিন ১৪ জুলাই দীপ্তির বাবা বাদী হয়ে মাদারীপুর সদর থানায় অজ্ঞাতনামা ব্যক্তিকে আসামি করে মামলা করেন।

তিনি আরও বলেন, এ ঘটনার পর থেকেই হত্যার রহস্য উদ্ঘাটন ও আসামিদের গ্রেপ্তার করতে সদর থানার পুলিশের পাশাপাশি র‌্যাব-৮ এর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রইছ উদ্দিনের নেতৃত্বে একটি দল তদন্ত শুরু করে। তদন্তের একপর্যায় ১৮ জুলাই ওই পরিত্যক্ত পুকুর থেকে একটি সিমেন্টের ব্যাগে দীপ্তির ব্যবহৃত পোশাক, বোরকা ও জুতা উদ্ধার করে। এসব আলামতের সূত্র ধরেই সাজ্জাদকে গ্রেপ্তার করা হয়। সাজ্জাদ পেশায় একজন ইজিবাইকচালক। এর আগে তিনি ১৯৯২ সালে ৭ বছরের শিশুকে গলাটিপে হত্যার মামলায় ১৮ বছর কারাভোগ করেন।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

Kazi

২০১৯-০৭-২০ ২৩:১৬:১৮

_ঐটা___ব্যবচ্ছেদ করে ছেড়ে দিলেই ধর্ষণকারীরা সাবধান হবে। কিন্তু সরকার তো আইন বদলাচ্ছে না।

আপনার মতামত দিন

রাঙামাটিতে সেনাবাহিনীর অভিযানে শীর্ষ সন্ত্রাসী নিহত

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে সরকার কূটনৈতিকভাবে ব্যর্থ: রিজভী

পুড়ছে পৃথিবীর ফুসফুস

সাফে দুর্দান্ত শুরু বাংলাদেশের

নারী ও শিশু রক্ষায় বিএনপির কমিটি

ভয়ঙ্কর অপহরণকারী চক্রের ৫ সদস্য গ্রেপ্তার

সকল এমপিকে মশা নিধনে যুক্ত করার আহবান

ছুটির দিনে রাজধানীতে দুর্ঘটনায় ঝরলো দুই প্রাণ

নিখোঁজের ৭ দিন পর নয়নের লাশ উদ্ধার

মোহাম্মদপুরে ছাদ থেকে পড়ে এক ব্যক্তি নিহত

রেলস্টেশনের পাগলী এখন তারকা শিল্পী (ভিডিও)

কাশ্মীর ইস্যু: ভারত-পাকিস্তানকে সহায়তা করতে প্রস্তুত ট্রাম্প

ভারত-পাকিস্তান গুলি বিনিময়

ডেঙ্গু কেড়ে নিলো গৃহবধূসহ ৩ জনের প্রাণ

টেকনাফে যুবলীগ নেতাকে গুলি করে হত্যা

সাতক্ষীরায় ‘মাদক ব্যবসায়ী’র গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধার