ওয়ান ইলেভেনের চেয়েও খারাপ বর্তমান সরকার: বিএনপি

অনলাইন

স্টাফ রিপোর্টার | ১৫ আগস্ট ২০১৮, বুধবার, ৫:৩২
বর্তমান সরকারকে ওয়ান ইলেভেনের চেয়েও খারাপ বলে আখ্যায়িত করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি বলেছেন, ওয়ান ইলেভেনের অবৈধ সরকার খালেদা জিয়াকে কারাবন্দী করেছিল। তারা তাঁকে মুক্তি দিতে বাধ্য হয়েছিল। সেই সরকারের চেয়েও খারাপ বর্তমান ফ্যাসিস্ট সরকার। বর্তমান সরকার মানুষের সব অধিকার দখল করে রেখেছে। বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার ৭৪তম জন্মদিন উপলক্ষে দলের নয়াপল্টন কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত এক মিলাদ ও দোয়া মাহফিলে তিনি এ মন্তব্য করেন। এ উপলক্ষে সারাদেশে খালেদা জিয়ার কারামুক্তি, রোগমুক্তি ও দীর্ঘায়ু কামনা করে এ দোয়া মাহফিলের আয়োজন করে বিএনপি। মির্জা আলমগীর বলেন, রাজনৈতিক দল হিসেবে আমাদের দায়িত্ব ও কর্তব্য হচ্ছে গণতন্ত্রের মাতা দেশনেত্রী খালেদা জিয়াকে মুক্ত করা।
গণতন্ত্রকে মুক্ত করার জন্য, দেশের মানুষের অধিকারকে পুনরায় ফিরিয়ে আনার জন্য, আমাদের জীবনবাজি রেখে লড়াই করতে হবে। খালেদা জিয়াকে মুক্তি দিতে এ সরকারকে বাধ্য করতে হবে। খালেদা জিয়াকে মুক্তি দিতে হবে এবং দেশে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠায় সংসদ ভেঙে দিয়ে নিরপেক্ষ সরকার প্রতিষ্ঠা করে নির্বাচন পরিচালনা করতে সরকারকে বাধ্য করতে হবে। এ সংগ্রামে আমাদের জয়ী হতে হবে। বিএনপি মহাসচিব বলেন, আজকে এমন দিনেÑ এমন এক মুহূর্তে আমরা খালেদা জিয়ার জন্মদিনে দোয়া করার জন্য উপস্থিত হয়েছি, যখন তিনি এই ফ্যাসিস্ট স্বৈরাচারী সরকারের চক্রান্তে কারারুদ্ধ রয়েছেন। তিনি শুধু একজন সাবেক প্রধানমন্ত্রী নন, তিনি গণতান্ত্রিক আন্দোলনের কয়েকজন ব্যক্তির মধ্যে একজন। তিনি সারা জীবন গণতন্ত্রের জন্য সংগ্রাম করেছেন।

বিএনপি মহাসচিব বলেন, স্বৈরাচার এরশাদ আমলে দীর্ঘ নয় বছর মানুষের কাছে গেছেন খালেদা জিয়া। মানুষকে নিয়ে রাজপথে স্বৈরাচারী সরকারের পতন ঘটিয়েছেন। তিনি জনগণের ভালোবাসায় সিক্ত হয়ে তিনবার দেশের প্রধানমন্ত্রী হয়েছেন। ওয়ান ইলেভেনের সময়ও তাকে কারাবন্দি করা হয়েছিল। কিন্তু তিনি কারাগারে থেকেই সরকারকে জরুরি অবস্থা তুলে নিতে বাধ্য করেছিলেন। বর্তমান সরকারের আমলেও গণতন্ত্রের প্রশ্নে আপসহীন অবস্থান থেকে সরেননি তিনি। গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারের লড়াই করতে গিয়ে তিনি আজ মিথ্যা মামলায় কারাভোগ করছেন। শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের বিষয়ে মির্জা আলমগীর বলেন, কোমলমতি শিক্ষার্থীদের অরাজনৈতিক আন্দোলনকে নির্মমভাবে দমন করেছে সরকার। শিক্ষার্থীদের গ্রেপ্তার করছে, তুলে নেয়া হচ্ছে। মেয়েদেরও রেহাই দেয়া হচ্ছে না। এ সময় বিএনপি স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস, গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আবদুস সালাম, হাবিবুর রহমান হাবিব, সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী, শিক্ষা সম্পাদক এবিএম ওবায়দুল ইসলাম, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক আবদুস সালাম আজাদ ও মহিলাদলের সভাপতি আফরোজা আব্বাস উপস্থিত ছিলেন।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

ঢাকা দখলের ঘোষণা ১৪ দলের

প্রেসিডেন্টের আশা, সব দল নির্বাচনে অংশ নিবে

বাংলাদেশের রাজীবকে ফেসবুকের ফেলোশিপ প্রদান

শেহজাদের সেঞ্চুরিতে ভারতের বিপক্ষে আফগানদের পুঁজি ২৫২

এস কে সিনহার ঘটনা প্রকাশ্যে আসলে আরো দুর্গন্ধ ছড়াবে

ফারমার্স ব্যাংকের ৬ কর্মকর্তাকে দুদকে তলব

ইবি ছাত্রদলের স্মারকলিপি ফিরিয়ে দিলো প্রশাসন

পরবর্তী শুনানি আগামীকাল, আইনজীবী না থাকায় আদালতের উষ্মা

মৌলভীবাজারে হোটেল শ্রমিক ইউনিয়নের মিছিল ও পথসভা

‘মাদক সেবনকারীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে’

পাচারকারী নারীর সঙ্গে কেজরিওয়ালের ছবি, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ঝড়

ঢাবির ‘খ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষায় পাশের হার ১৪ শতাংশ

শহিদুল আলমের ডিভিশনের আপিল শুনানি ১লা অক্টোবর

অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন চায় আওয়ামী লীগ

১লা অক্টোবর থেকে রেডি হয়ে যান : মওদুদ

বৃহস্পতিবারের পরিবর্তে বিএনপির জনসভা শনিবার