রমেক মর্গে দেড় বছর ধরে ৬ বেওয়ারিশ লাশ

বাংলারজমিন

জাভেদ ইকবাল, রংপুর থেকে | ১৭ মে ২০১৮, বৃহস্পতিবার
বেওয়ারিশ ৬ জনের লাশ দেড় বছর ধরে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পড়ে আছে। এর মধ্যে দুই নারী ও ৪ পুরুষের লাশ রয়েছে। তাদের প্রত্যেকের বয়স ২৫ থেকে ৫০ এর মধ্যে। রংপুর বিভাগের বিভিন্ন স্থানে বিভিন্ন সময়ে সড়ক দুর্ঘটনায় আহত হয়ে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন থাকা অবস্থায় মারা যায় এরা। লাশগুলোর কোনো দাবিদার না থাকায় এদের ঠাঁই হয়েছে হিমঘরে। এ ছয় লাশের সদ্‌গতি কবে হবে তা কেউ বলতে পারছে না। রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ বলছেন আইনি জটিলতার কারণে এটি পড়ে আছে। পুলিশ প্রশাসন ও সিটি কর্পোরেশনের আন্তরিকতার অভাবে দিনের পর দিন মর্গে থাকা লাশগুলোর পচন ধরার উপক্রম হয়েছে।
হাসপাতালের পরিচালক ডা. অজয় কুমার জানান, অজ্ঞাত এসব বেওয়ারিশ লাশের বিষয়টি পুলিশ প্রশাসনকে জানিয়েছি। পুলিশ প্রশাসন বলছে বিষয়টি তদন্ত করে দ্রুত ব্যবস্থা নেয়া হবে। অপরদিকে বেওয়ারিশ লাশ দাফনের বিষয়ে সিটি কর্পোরেশনের মুখ্য ভূমিকা থাকলেও তারা রয়েছে উদাসীন। এসব নানা জটিলতায় লাশের শেষকৃত্য হচ্ছে না। সূত্র জানায়, সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত এসব বেওয়ারিশ লাশের পরিচয় উদ্ঘাটনের কোনো চেষ্টাও করা হচ্ছে না বলে অভিযোগ রয়েছে। এদিকে হাসপাতালের হিমঘরে থাকা এসব বেওয়ারিশ লাশের সবচেয়ে বেশি দুর্ভোগের সৃষ্টি হয়েছে শীতাতপ নিয়ন্ত্রণ যন্ত্রের কারণে। হাসপাতালের মর্গের এসি নষ্ট হয়ে যাওয়ায় লাশগুলোর মধ্যে পচন ও দুর্গন্ধের আশঙ্কা দেখা দিয়েছে। সুষ্ঠুভাবে সংরক্ষণ করা সম্ভব হচ্ছে না।





এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

এবার বহিষ্কার হচ্ছেন বি চৌধুরী!

ইসির বৈঠকে কূটনীতিকদের উদ্বেগ আসছেন ইইউ’র দুই বিশেষজ্ঞ

বিদায় রুপালি গিটারের ফেরিওয়ালা

তিনদিনে ডিজিটাল আইনে ১৬ মামলার আবেদন

সিলেটে সমাবেশের অনুমতি মিলেনি

জনমতের প্রকৃত প্রতিফলন দেখতে চায় যুক্তরাষ্ট্র

আওয়ামী লীগ মাহবুব তালুকদারের পদত্যাগ চায় না

মহানবীর রওজা জিয়ারত করলেন প্রধানমন্ত্রী

সাড়ে ১৭ হাজার কোটি টাকার বাণিজ্য ঘাটতি

আওয়ামী লীগে স্বস্তি বিএনপিতে টানাপড়েন

আঞ্জু জানেন না স্বামী বেঁচে নেই

শেষ কলামেও গণমাধ্যমের স্বাধীনতার কথা লিখেছেন খাসোগি

সিলেটে চেয়ারম্যানপুত্রের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগে মামলা

ঢাকায় আকবরের নেটওয়ার্ক

এমপি রানার জামিন নামঞ্জুর

এরশাদের দিকে তাকিয়ে নেতাকর্মীরা