বাসে ছাত্রীকে ধর্ষণচেষ্টা : চালকসহ তিনজন আটক

অনলাইন

স্টাফ রিপোর্টার | ২৩ এপ্রিল ২০১৮, সোমবার, ৯:২৪
রাজধানীর উত্তরা ইউনিভার্সিটির ছাত্রীকে ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগে তুরাগ পরিবহনের একটি বাসের চালক ও সহকারীসহ তিনজনকে আটক করেছে পুলিশ। সোমবার সন্ধ্যায় রাজধানীর সায়েদাবাদ এলাকা থেকে তাদের আটক করা হয়। বিষয়টি নিশ্চিত করেন গুলশান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবু বকর। তিনি মানবজমিনকে বলেন, তুরাগ পরিবহনে উত্তরা ইউনিভার্সিটির ছাত্রীকে যৌন হয়রানি করার অভিযোগে চালকসহ তিনজনকে আটক করা হয়েছে। সায়েদাবাদ এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয়।

ওসি আরো জানান, তিনজনকে ওই ছাত্রীই শনাক্ত করেছেন। আটকৃতরা হলেনÑ বাসের চালক রোমান, কন্ডাক্টার মনির ও সহকারি নয়ন। এদিকে ছাত্রীকে যৌন হয়রানির প্রতিবাদে রোবাবার থেকে ক্ষোভ বিরাজ করছে বিশ্ববিদ্যালয়টির শিক্ষার্থীদের মাঝে।
তুরাগ বাসের মালিক পক্ষ ও প্রশাসনের পক্ষ থেকে কোনো সুষ্ঠু সমাধান না পাওয়ায় শিক্ষার্থীরা ফের আন্দোলনে নামবে বলেও জানিয়েছেন। এজন্য আগামীকাল দুপুর বারোটা পর্যন্ত তারা আলটিমেটাম দিয়েছিলেন। সোমবার বিকাল সাড়ে চারটায় বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসে এক সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে হয়রানির শিকার ওই শিক্ষার্থীর সহপাঠীরা জানান, মঙ্গলবার (আজ) দুপুর বারোটার মধ্যে যদি তুরাগ বাসের মালিক ও প্রশাসন প্রকৃত অপরাধীকে শনাক্ত না করে তাকে আইনের আওতায় না আনা হয় তাহলে দুপুর ১টা থেকে ফের রাজপথে অবস্থান করবেন তারা। তবে অভিযুক্তদের আটকের পর তারা আদালতের রায়ের অপেক্ষায় থাকবেন বলেও জানান। এ প্রসঙ্গে, আন্দোলনের আহবায়ক উত্তরা ইউনিভার্সিটির শিক্ষার্থী পারভেজ মানবজমিনকে বলেন, আমাদের কর্মসূচি ও দাবিগুলো এখনই তুলে নিচ্ছি না। এখনো আদালতের রায় দেখা বাকি আছে। বিষয়টি নিয়ে আমরা পরবর্তীতে আবার সংবাদ সম্মেলন করে জানাবো।

উল্লেখ্য, শনিবার দুপুর ১টায় তুরাগ পরিবহনের একটি বাসে চালকের সহকারী বিশ্ববিদ্যালয়ের ওই ছাত্রীকে ধর্ষণচেষ্টা চালিয়েছে। ভুক্তভোগী ওই শিক্ষার্থী সিএসসি বিভাগের ৩য় সেমিস্টারের শিক্ষার্থী। ঘটনার পর উত্তরা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা উত্তরা ক্যাম্পাসের সামনে একাধিক তুরাগ বাস আটকে প্রতিবাদ করেন।




এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

গাইবান্ধায় বাসচাপায় নিহত ২

অস্ত্রের মুখে কিশোরীকে ধর্ষণ, পৌর কাউন্সিলর গ্রেপ্তার

সিরাজগঞ্জে জাতীয় পাটকলে আগুন

অস্ত্র প্রতিযোগিতায় যুক্তরাষ্ট্র, রাশিয়া ও চীন

যৌন দাসত্ব থেকে দুই কোরিয়ান নারীকে উদ্ধারের কাহিনী

মসজিদ-উল নববীর ইমাম কারাগারে ‘মারা গেছেন’

ওরা কি মানুষ?

জনগণের আস্থার মর্যাদা সমুন্নত রাখতে হবে

ঢাকা উত্তর সিটির মেয়র পদে ভোট ২৮শে ফেব্রুয়ারি

এমন মৃত্যু আর কত?

এক কিংবদন্তির প্রস্থান

ক্ষতিগ্রস্তদের পাশে দাঁড়াতে বিএনপির ১০ কমিটি

স্পাইসগার্ল টি-শার্ট এবং বাংলাদেশের গার্মেন্ট খাত

ইভিএমের কারচুপি জেনে ফেলায় খুন হন বিজেপি নেতা!

মুক্তিযোদ্ধা কোটা বহালের দাবিতে শাহবাগে ফের অবরোধ

ইজতেমা নিয়ে আদালতে আসা লজ্জাকর