গাজীপুর সিটি নির্বাচন সন্ত্রাসমুক্ত করতে সেনাবাহিনী দরকার

এক্সক্লুসিভ

স্টাফ রিপোর্টার, টঙ্গী থেকে | ২৪ এপ্রিল ২০১৮, মঙ্গলবার | সর্বশেষ আপডেট: ২:০৩
গাজীপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনের সাত দিন আগে প্রতিটি ভোটকেন্দ্রে সেনাবাহিনী মোতায়েনের দাবি জানিয়েছেন বিএনপি প্রার্থী হাসান উদ্দিন সরকার। এ ছাড়াও  তিনি বলেন, এলাকার ভোটাররা নির্বিঘ্নে যাতে তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে পারে সেদিকে লক্ষ্য রেখে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের দৃশ্যমানভাবে নাম ও র‌্যাঙ্ক ব্যাজসহ ইউনিফর্ম পড়ে দায়িত্ব পালন করতে হবে। সাদা পোশাকে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের ডিউটিতে না পাঠাতে আহ্বান জানাচ্ছি। গতকাল দুপুরে টঙ্গী আউচপাড়াস্থ হাসান সরকারের বাসভবনে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে তিনি এ দাবি জানান।

তিনি বলেন, অবৈধ অস্ত্র উদ্ধার করে সন্ত্রাস ও পেশি শক্তির প্রভাবমুক্ত নির্বাচনী পরিবেশ তৈরি করতে সেনাবাহিনী মোতায়েন করতে হবে। বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর প্রতি জনগণের পূর্ণ আস্থা রয়েছে।

প্রশাসনের নিরপেক্ষতা চাই। নির্বাচনের সময় এলাকায় কালো টাকার ছড়াছড়ি দেখা যায়। ভোটারদের কালো টাকার বিনিময়ে যাতে প্রভাবিত করতে না পারে সে দিকে কড়া নজর রাখতে প্রশাসনের প্রতি আহ্বান জানান হাসান সরকার।
তিনি আরো বলেন, নির্বাচনকে সুষ্ঠু করতে হলে এলাকার চিহ্নিত সন্ত্রাসীদের গ্রেপ্তার ও অবৈধ অস্ত্র উদ্ধার করতে হবে।
তিনি আরো বলেন, নির্বাচনকে সামনে রেখে বিএনপির কোনো দলীয় নেতাকর্মীকে মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানি না করার আহ্বান জানান। এ ছাড়াও নির্বাচনের সময় ব্যালট পেপার ও বাক্স চুরি এবং ভোটকেন্দ্র ও আশপাশে অস্ত্রের মহড়া বন্ধ করতে হবে।
হাসান সরকার বলেন, ভোটের দিন স্থানীয় প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকগণ যাতে নির্বিঘ্নে সংবাদ সংগ্রহ করতে পারে সেই ব্যবস্থা নিশ্চিত করতে হবে।

তিনি বলেন, গাজীপুর সিটি করপোরেশনের নির্বাচন অনুষ্ঠানের নির্দিষ্ট তারিখের সাত দিন পূর্ব হতে নির্বাচনী এলাকায় টহলসহ প্রতিটি ভোটকেন্দ্রে অবশ্যই সেনাবাহিনী মোতায়েন করতে হবে।
হাসান উদ্দিন সরকার আরো বলেন, নির্বাচনী কর্মকর্তা বা ভোট গ্রহণ কর্মকর্তাগণের প্যানেল প্রস্তুতের সময় স্বচ্ছতা নিশ্চিত করে দল নিরপেক্ষ কর্মকর্তাদের সমন্বয়ে প্যানেল তৈরি করতে হবে। বিতর্কিত কর্মকর্তাদের প্যানেলভুক্ত না করার আহ্বান জানাচ্ছি।

মতবিনিময়কালে উপস্থিত ছিলেন গাজীপুর জেলা বিএনপির সভাপতি ও সাবেক এমপি ফজলুল হক মিলন, সাধারণ সম্পাদক কাজী সাইয়েদুল আলম বাবুল, গাজীপুর জেলা বিএনপির সিনিয়র সহ-সভাপতি সালাহ উদ্দিন সরকার, যুগ্ম-সম্পাদক শিল্পপতি সোহরাব উদ্দিন, ডা. মাজহারুল আলম, মাওলানা নাসির উদ্দিন, আজিজুল হক রাজু মাস্টার, আব্দুর রহিম খান কালা প্রমুখ।




এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

Hossain

২০১৮-০৪-২৪ ০৩:৫৯:৫৯

Ja khomotay asa sai kokhono army chayna. Ai rokom bnp o korsa. Akhon ara o kora.

আপনার মতামত দিন

ঈদে ট্রেনের অগ্রিম টিকিট বিক্রি ১ জুন থেকে

মাদক ব্যবসায়ীদের হামলায় ৫ পুলিশ আহত, ২০০ পিচ ইয়াবা সহ আটক ১

দ্বিতীয় দফায় জিজ্ঞাসাবাদ চলছে নাজিব রাজাকের

টেকনাফে ২ লাখ ৫০ হাজার পিস ইয়াবা উদ্ধার

প্রেমে বাধা দেয়াই কাল হলো মেহেদীর

জর্জিয়া ষ্টেট সিনেট নির্বাচন : প্রাইমারীতে বাংলাদেশি শেখ রহমান জয়ী

জোরপূর্বক গুম, সরকারের দাবির পক্ষে স্বচ্ছতা নেই বললেই চলে

মাদকবিরোধী অভিযানে নিহত আরো ৯

ফেসবুক কেন ব্যবহারকারীদের নগ্ন ছবি চাইছে?

ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে বৈঠক করতে আইনজীবীকে অর্থ দিয়েছিলেন ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট

‘গানের অডিও ভালো না হলে শত ভিডিও করেও লাভ নেই’

হাসিনা-মোদি বৈঠকে যে আলোচনা হতে পারে

মন্ত্রীদের বেতন ১০ ভাগ কমালেন মাহাথির

চার মাসে ১২১২ খুন

হৃদয়ভাঙা মৃত্যু

দেশ ছেড়ে পালাচ্ছে শীর্ষ মাদক ব্যবসায়ীরা