‘ইউএস-বাংলার বিমানে কোনো ত্রুটি ছিল না, পাইলট ছিলেন সুস্থ’

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক | ১৮ মার্চ ২০১৮, রোববার
কাঠমান্ডুর উদ্দেশে উড়ে যাওয়ার আগে ইউএস-বাংলার বিমানটিতে কোনো যান্ত্রিক ত্রুটি ছিল না। বাংলাদেশের বিমান দুর্ঘটনা অনুসন্ধান গ্রুপ বা এয়ারক্রাফট এক্সিডেন্ট ইনভেস্টিগেশন গ্রুপের প্রধান ক্যাপ্টেন সালাহউদ্দিন এম রহমতুল্লাহ এ কথা বলেছেন। সোমবার নেপালের ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ৭১ জন আরোহী নিয়ে বিধ্বস্ত হয় ইউএস-বাংলার ওই বিমানটি। এ নিয়ে দু’দেশের যৌথ তদন্তের জন্য কাঠমান্ডু ছাড়ার আগে তিনি সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলছিলেন। বাংলাদেশী তদন্ত দলের নেতৃত্ব দিচ্ছেন ক্যাপ্টেন রহমতুল্লাহ। আজ সকালে ঢাকায় সিভিল এভিয়েশন অথরিটি অব বাংলাদেশ (ক্যাব) অফিসে সাংবাদিক সম্মেলনে তিনি বক্তব্য রাখেন। এতে ক্যাপ্টেন রহমতুল্লাহ বলেন, ইউএস-বাংলার ফ্লাইট বিএস২১১ এর পাইলট আবিদ হাসান শারীরিকভাবে সম্পূর্ণ সুস্থ ছিলেন। ওই বিমানটি পুরনো ছিল বলে যে অভিযোগ করা হচ্ছে তা খ-ন করেন ক্যাপ্টেন রহমতুল্লাহ।
তিনি বলেন, একটি বিমানের বিভিন্ন যন্ত্রাংশ যখন পরিবর্তন করা হয় তখন তা আর পুরনো থাকে না, তাতে কোনো যান্ত্রিক ত্রুটি থাকে না। এ বিষয়ে নেপাল সরকার একটি তদন্ত কমিটি করেছে। তার প্রধান করা হয়েছে ভাগ্য প্রসাধ গৌতমকে। তিনি একটি পত্রিকাকে বলেছেন, ফ্লাইটটির ডাটা রেকর্ডার ও ককপিট ভয়েস রেকর্ডার অবমুক্ত করা হবে কিনা সে বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে বিশেষজ্ঞদের যৌথ টিম শিগগিরই বসবেন। দু’এক দিনের মধ্যে কানাডা ও নেপালি কর্মকর্তাদের সমন্বয়ে একটি যৌথ অনুসন্ধানী দলে যোগ দেবেন বাংলাদেশী কর্মকর্তারা। এরই মধ্যে তথ্য সংগ্রহ সহ সব কাজ শুরু করে দিয়েছেন কানাডিয়ান ও নেপালি তদন্তকারীরা। তারা সিসিটিভির ফুটেজও বিশ্লেষণ করে দেখছেন।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

দেশের স্বার্থে নতুন মেরূকরণ হতে পারে

এমপিদের লাগাম টানছে না ইসি

স্টিয়ারিং কমিটিতে যারা থাকছেন

এনডিআই-এর নির্বাচনী ২০ দফা

সিলেটে একদিন পিছিয়েও সমাবেশের অনুমতি পায়নি ঐক্যফ্রন্ট

জাপার দুর্গে আওয়ামী লীগের দৃষ্টি

শিক্ষকদের সহযোগিতা চাইলেন প্রধানমন্ত্রী

সৌদি আরবে শঙ্কায় লাখ লাখ বাংলাদেশি শ্রমিক

তিন জেলায় বন্দুকযুদ্ধে নিহত ৪

তিনদিনের সফরে ঢাকায় এলিস ওয়েলস

টাঙ্গাইলে দীপু মনির জনসভা বাতিল, উত্তেজনা

খাসোগি হত্যার দায় স্বীকার সৌদির

ল্যান্ডমার্ক ম্যাচে মাশরাফিদের অন্য ‘লড়াই’

জাতীয় আইনজীবী ঐক্যফ্রন্ট ঘোষণা

‘ক্ষমতায় গেলে ৭ দিনের মধ্যে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিল’

‘ঐক্যফ্রন্ট নিয়ে ভয় পাওয়ার কিছু নেই’